× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার

দেশে পৌঁছেছে “আকাশ তরী”

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১, বুধবার, ৭:৩৯ অপরাহ্ন

বাংলাদেশ ও কানাডা সরকারের মধ্যে জিটুজি ভিত্তিতে ক্রয় করা ৩টি ড্যাশ-৮ উড়োজাহাজের ২য় উড়োজাহাজ আজ বিকেল ৫ টা ৪৫ মিনিটে দেশে পৌঁছেছে।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই উড়োজাহাজের নাম রেখেছেন “আকাশ তরী”
বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী এমপি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে উড়োজাহাজটি গ্রহণ করেন। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মোকাম্মেল হোসেন, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চেয়ারম্যান মোঃ সাজ্জাদুল হাসান, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মোঃ মফিদুর রহমান ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মোকাব্বির হোসেন প্রমূখ।
উড়োজাহাজটি গ্রহণের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী এমপি জানান- প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরকে আধুনিকায়ন করার জন্য কাজ করছেন। তার অংশ হিসেবেই নতুন উড়োজাহাজ "আকাশ তরী" আজ দেশে এসেছে।  আগামী ৪ মার্চ তৃতীয় ড্যাশ-৮  উড়োজাহাজটি দেশে এসে পৌঁছাবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা ও তত্ত্বাবধানে ইতোমধ্যেই বিমানের বহরে সম্পূর্ণ নতুন ও অত্যাধুনিক ১৩টি নিজস্ব উড়োজাহাজ যুক্ত হয়েছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে এই ড্যাশ- ৮ উড়োজাহাজগুলো যুক্ত হওয়ার ফলে বিমান তার অভ্যন্তরীণ ও স্বল্প দূরত্বের  আন্তর্জাতিক রুট গুলোতে ফ্লাইট ফ্রিকোয়েন্সি বৃদ্ধি করবে। একই সাথে যাত্রীদের আরো উন্নত ইন-ফ্লাইট সেবা প্রদান করা সম্ভব হবে।

কানাডার বিখ্যাত এয়ারক্রাফট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ডি হ্যাভিল্যান্ড নির্মিত অত্যাধুনিক নতুন ড্যাশ ৮-৪০০ চুয়াত্তর সিট সম্বলিত উড়োজাহাজ। পরিবেশবান্ধব এবং অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সমৃদ্ধ এ উড়োজাহাজে রয়েছে হেপা (ঐঊচঅ) ফিল্টার প্রযুক্তি যা মাত্র ৪ মিনিটেই ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাসসহ অন্যান্য জীবাণু ধ্বংসের মাধ্যমে উড়োজাহাজের অভ্যন্তরের বাতাসকে সম্পূর্ণ বিশুদ্ধ করে যা সম্মানিত যাত্রীগণের যাত্রাকে করে তোলে অধিক সতেজ ও নিরাপদ।
এছাড়াও এ উড়োজাহাজে বেশি লেগস্পেস, এল ই ডি লাইটিং এবং প্রশস্ত জানালা থাকার কারনে ভ্রমণ হয়ে উঠবে অধিক আরামদায়ক ও আনন্দময়। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের নতুন উড়োজাহাজটি বহরে যুক্ত হওয়ার পর উড়োজাহাজের সংখ্যা হবে ২০টি । তন্মধ্যে ১৫ টি নিজস্ব এবং ৫টি লীজ। নিজস্ব ১৫টির মধ্যে বোয়িং৭৭৭-৩০০ ইআর ৪টি, বোয়িং ৭৮৭-৮ ৪টি, বোয়িং ৭৮৭-৯ ২টি, বোয়িং ৭৩৭ ২টি এবং ড্যাশ-৮ ৩টি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Zakir Hussain
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১০:০৩

According to its website 'The Canadian Commercial Corporation is a Canadian federal Crown corporation mandated to facilitate international trade on behalf of Canadian industry, particularly with governments of foreign countries'. Founded in 1946, Jim Carr, Minister of International Trade Diversification is the Minister responsible and the outfit is under the jurisdiction of the Government of Canada

ফরিদ আহমেদ
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বুধবার, ৮:৪০

তথ্যগত ভুল আাছে। ২০০৯-এর পর বিমানের বহরে যে নতুন ১৩টি উড়োজাহাজ সংযোজনের কথা বলা হয়েছে সেসবের বড় ১০টির ক্রয়ের প্রক্রিয়া শুরু হয় ২০০৫ সালে। বেগম জিয়ার নির্দেশে খুব দর কষাকষি হয়। এবং শেষ পর্যন্ত কমপিটিটিভ দরে ক্রয়ের চুক্তি হয় এপ্রিল-মে ২০০৮ -এ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে। ২০১৮ এর আগস্টে ৩টি Dash 8 Q400 বিমান জন্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের নাম De Havilland Aircraft of Canada Limited। বাংলাদেশ বিমান চুক্তি স্বাক্ষর করেছিল Canadian Commercial Corporation ("CCC") এর সঙ্গে। কিন্তু CCC কি কানাডীয় সরকারের এজেন্সি? কত ডলারে কেনা হলো এই তিনটি উড়োজাহাজ? অতিরিক্ত মূল্যের জন্য Dash 8 Q400 কুখ্যাত। সঠিক দাম জানতে চাই। সঠিক তথ্য সম্বলিত পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন চাই।

অন্যান্য খবর