× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১২ এপ্রিল ২০২১, সোমবার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাঠ কাঁপাচ্ছেন ৭৭ প্রার্থী, এগিয়ে নায়ার

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভায় শেষ সময়ের প্রচার-প্রচারণায় মাঠ কাঁপাচ্ছেন মেয়র-কাউন্সিলর পদের ৭৭ প্রার্থী। নাওয়া-খাওয়া ছেড়ে তারা ছুটছেন ভোটারদের দুয়ারে। পোস্টারে পোস্টারে সয়লাব শহর। তবে সব ছাপিয়ে আলোচনা ২৮শে ফেব্রুয়ারি কেমন হবে ভোট। কে বসবেন মেয়রের চেয়ারে। কাউন্সিলর পদে কার জয়ের সম্ভাবনা বেশি এগিয়ে- এসবই আলোচনার বিষয় সর্বত্র। তবে মেয়র নির্বাচনে একটাই ইস্যু সামনে। তা হলো শান্তি।
দল, প্রতীকের ঊর্ধ্বে ভোটাররা এ বিষয়টিকেই প্রাধান্য দিচ্ছেন বলে জানান শহরের পাইকপাড়ার সালাম মিয়া, মধ্যপাড়ার বাবুল মিয়া। তারা বলেন, মাদক, সন্ত্রাস, ছিনতাইকারীর দৌরাত্ম্যে শহর রসাতলে যাক তা কেউই চান না। নির্বাচনে মেয়র-কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৭৭ প্রার্থী। এর মধ্যে মেয়র পদে ৬ জন; কাউন্সিলর সাধারণ ওয়ার্ডে ৫৬ জন এবং সংরক্ষিত ৪টি ওয়ার্ডে ১৫ নারী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মেয়র পদের প্রার্থীরা হচ্ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত বর্তমান মেয়র  মিসেস নায়ার কবির (নৌকা), বিএনপি’র জহিরুল হক (ধানের শীষ), বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মো. নজরুল ইসলাম (হাতুড়ি), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আবদুল মালেক (হাতপাখা), স্বতন্ত্র মাহমুদুল হক ভূঁইয়া (মোবাইল), আবদুল করিম (নারিকেল গাছ)। তবে প্রচার-প্রচারণায় রয়েছেন ৪ প্রার্থী। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. আবদুল মালেক এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল করিমের তেমন কোনো প্রচারণা চোখে পড়েনি। বর্তমান মেয়র নায়ার কবিরকে দ্বিতীয়বার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়া হয়। দেড়শ’ বছর বয়সী পৌরসভায় প্রথম নারী মেয়র হিসেবে ৫ বছর দায়িত্ব পালন শেষে আবারো ভোটের মাঠে তিনি।  সন্ত্রাস, মাদক ব্যবসায় মদত দেয়ার কোনো অভিযোগ নেই তার বিরুদ্ধে। সবচেয়ে বড় বিষয় পৌরসভাকে দুর্নীতি আর অনিয়ম থেকে দূরে রেখেছেন তিনি। দলীয় এবং পরিবারের প্রভাবমুক্ত রেখেছেন পৌরসভাকে। এসবই আলোচনা ভোটারদের মুখে তাকে নিয়ে। দলের শক্তির বাইরে এই ইমেজ ভোটারদের কাছে এগিয়ে রেখেছে নায়ার কবিরকে। এদিকে এবারই প্রথম ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে ভোট হচ্ছে। সে কারণে ভোটাররা কৌতুহলী। প্রার্থীরা তাদের প্রচারপত্রে ভোটারদের বুঝাতে ইভিএম ভোটদান পদ্ধতি সচিত্র তুলে ধরেন। নির্বাচন অফিস ভোটারদের এ ব্যাপারে শেখাতে মক ভোট, মাইকিং এবং প্রচারপত্র বিলি করে এ সম্পর্কে ধারণা দেয়ার কাজ করছে। নির্বাচন অফিস জানায়, ২৪শে ফেব্রুয়ারি থেকে ২৬শে ফেব্রুয়ারি এ ব্যাপারে মাইকিং করা হবে। এছাড়া কেন্দ্রের সামনে ইভিএম প্রদর্শন এবং ৪৮ কেন্দ্রের সবক’টিতে মক ভোট হবে ২৬শে ফেব্রুয়ারি। প্রত্যেক কেন্দ্রে ২টি করে ইভিএম থাকবে মক ভোটের জন্যে। বিকাল ৪টা পর্যন্ত মক ভোটে অংশ নিতে পারবেন ভোটাররা। এছাড়া ফেষ্টুন, ব্যানার এবং প্রচারপত্র বিলি করে ভোটদান পদ্ধতি বুঝানো হবে। পৌরসভার মোট ভোটার ১ লাখ ২০ হাজার ৫০৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫৯ হাজার ৫৬২ জন, মহিলা ভোটার ৬০ হাজার ৯৪২ জন। ৪৮টি ভোট কেন্দ্রের ৩৩৯ ভোটকক্ষে ভোট দেবেন তারা। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের পদক্ষেপ নিয়েছেন তারা। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন করা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর