× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২২ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার

অবশেষে ম্যাচ পাতানো শনাক্তকরণ কমিটি বাফুফের

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার
২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শনিবার

প্রিমিয়ার লীগে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগ তদন্তে মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি রেখে সমালোচনার মুখে পড়েছিল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। ঘরোয়া ফুটবলে এমন গুরুতর অপরাধ তদন্তে ফেডারেশনের আন্তরিকতা নিয়ে প্রশ্ন উঠলে নড়েচড়ে বসে দেশের সর্বোচ্চ ফুটবল সংস্থা। একটি নতুন ম্যাচ পাতানো শনাক্তকরণ কমিটি গঠন করেছে বাফুফে। নতুন কমিটিতে চেয়ারম্যান নিযুক্ত করা হয়েছে হুমায়ুন খালিদকে। যিনি মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটিরও আহ্বায়ক ছিলেন। আগের কমিটির দুই সদস্য ইন্দুভূষণ দেব ও সরদার মোহাম্মদ শোয়েবকে রাখা হয়েছে সদস্য হিসেবে। সাবেক দুই ফুটবলার মোহাম্মদ মহসিন ও খন্দকার রকিবুল ইসলামকে রাখা হয়েছে সদস্য পদে। এ ছাড়াও পুলিশের একজন ও গোয়েন্দা সংস্থার একজন প্রতিনিধিকে রাখা হয়েছে কমিটিতে।
এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এফসি) চলতি মাসের মাঝামাঝি সময়ে লীগে স্পট ফিক্সিং নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে বাফুফেকে অবহিত করে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে লীগের দুই দল আরামবাগ কেসি ও ব্রাদার্স ইউনিয়নের কাছে ব্যাখ্যা জানতে চায় ফেডারেশন। অন্তত পাঁচ ম্যাচে এ ফিক্সিং হয়েছে বলে অভিযোগ এএফসির। এর পরিপ্রেক্ষিতে ফিক্সিং নিয়ে নিজেদের কঠোর অবস্থানের কথা জানায় বাফুফে। তার পরপরই তদন্ত কমিটির মেয়াদ নিয়ে প্রশ্ন উঠলে নতুন কমিটি দিতে বাধ্য হয় ফেডারেশন।

পাতানো খেলা শনাক্তকরণ কমিটি
চেয়ারম্যান: হুমায়ুন খালিদ (সাবেক সচিব)। সদস্য: ইন্দুভূষণ দেব, সরদার মো. শোয়েব, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিনিধি (ডিবি-সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম), জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) প্রতিনিধি, মো. মহসিন ও খন্দকার রকিবুল ইসলাম।
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর