× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২২ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার

‘এমন টেস্ট হওয়া উচিত নয়’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শনিবার

ভারত-ইংল্যান্ডের গোলাপি টেস্ট দিয়েই আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামের নবযাত্রা শুরু হলো। পাঁচদিনের টেস্ট ম্যাচে দেড় দিনও টিকতে পারেনি ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা। প্রথম দফায় ১১২ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ড অলআউট হয় মাত্র ৮১ রানে। আর আহমেদাবাদের উইকেট নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা করছেন ইংল্যান্ডের সাবেক ক্রিকেটাররা। আহমেদাবাদের সরদার প্যাটেল স্টেডিয়াম নরেন্দ্র মোদির নাম ধারণ করার পর এখানে এটি ছিল প্রথম ম্যাচ। শুরুতে ভাবা হয়, মোদি স্টেডিয়ামের উইকেট পেস সহায়ক এবং স্পোর্টিং পিচ। চার পেসার নিয়ে গোলাপি টেস্টের লড়াইয়ে মাঠে নামে ইংল্যান্ড।

কিন্তু দু’দলের তিন ইনিংসে পতন হওয়া ৩০ উইকেটের ২৮টিই নেন স্পিনাররা। অশ্বিন-অক্ষরের ঘূর্ণির সামনে দাঁড়াতেই পারেননি ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা।
১০ উইকেটে জয় পায় ভারত। ম্যাচের নিষ্পত্তি হয় মাত্র পাঁচ সেশনে। ম্যাচের স্থায়িত্ব ছিল ১৪০.২ ওভার। ১৯৩৫ সালের পর এটি ছিল সবচেয়ে স্বল্পায়ু টেস্ট। সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার ও ক্রীড়ালেখক জনাথন এগনিউ বার্তা সংস্থা বিবিসিতে লিখেছেন, ‘দুই দিনেই খেলা শেষ- এমন টেস্ট হওয়া উচিত নয়। আমি এর আগে বলেছি, এমন পিচে খেলা হলে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পয়েন্ট যেন না দেয় আইসিসি। কিন্তু আইসিসি হাত গুটিয়ে বসে আছে এবং কিছুই করছে না।’ লজ্জাজনক হারের পর ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট বলেন, ‘এই উইকেটে খেলা খুবই কঠিন এবং চ্যালেঞ্জিং। এই পিচ টেস্টের জন্য যোগ্য কি না সে ব্যাপারে কথা বলব না, সিদ্ধান্ত আইসিসির ওপরই ছেড়ে দিলাম। আমাদের জন্য যেমন উইকেট প্রস্তুত করবে, ক্রিকেটার হিসেবে সেখানেই সেরাটা দিয়ে চেষ্টা করা ছাড়া কিছুই করার নেই আমাদের।’ রুট বলেন, ‘আমি মনে করি এই ব্যাপারে আইসিসির নজর দেয়া উচিত। হ্যাঁ, স্বাগতিক হিসেবে ঘরের মাঠে সামান্য সুবিধা নিতেই পারে। তবুও আমি মনে করি আইসিসির এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দেয়া জরুরি।’ শুরুতে ভাবা হয় মোদি স্টেডিয়ামের উইকেট পেস সহায়ক এবং স্পোর্টিং পিচ। যার কারণে চার পেসার নিয়ে গোলাপি টেস্টের লড়াইয়ে মাঠে নামে ইংল্যান্ড। স্বীকৃত একমাত্র স্পিনার হিসেবে একাদশে রাখা হয় বাঁ-হাতি ঘূর্ণি বোলার জ্যাক লিচকে। আগের টেস্টে বল হাতে নৈপুণ্য দেখালেও একাদশের বাইরে চলে যান অফস্পিনার ডমিনিক বেস। টস জিতে আগে ব্যাটিং নিতে দুবার ভাবেননি ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট। ওপেনার জ্যাক ক্রলির অর্ধশতক স্বত্ত্বেও মাত্র ১১২ রানে গুড়িয়ে যায় ইংল্যান্ডের ইনিংস। বল হাতে ৬ উইকেট নেন ভারতীয় বাঁহাতি স্পিনার অক্ষর প্যাটেল। প্রথম ইনিংসে শঙ্কা নামে ভারতীয় শিবিরেও। ১৪৫ রানে অলআউট হয় স্বাগতিকরা। ইংল্যান্ডের অকেশনাল স্পিনার জো রুট নেন মাত্র ৮ রানে পাঁচ উইকেট। কিন্তু সুবিধা নিতে ব্যর্থ হয় ইংলিশরা। সফরকারীদের দ্বিতীয় ইনিংস গুঁড়িয়ে যায় মাত্র ৮১ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়ে ম্যাচে অক্ষর প্যাটেলের শিকার দাঁড়ায় ১১তে। আহমেদাবাদে দিবারাত্রি টেস্টে ইংল্যান্ডকে ১০ উইকেটে হারিয়ে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ২-১ এ এগিয়ে স্বাগতিক ভারত। একই ভেন্যুতে সিরিজের শেষ টেস্ট শুরু হবে আগামী ৪ঠা মার্চ। ওই ম্যাচে ড্র করলেই আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলবে ভারত। আগেই ফাইনাল নিশ্চিত করেছে নিউজিল্যান্ড। ইংল্যান্ডের সম্ভাবনা শেষ। সিরিজের শেষ টেস্টে ভারত হারলে সম্ভাবনা জাগবে অস্ট্রেলিয়ার। সেক্ষেত্রে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পরবর্তী সিরিজে সাফল্য পেতে হবে অজিদের।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর