× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার

তিতাসে ডাকাত আতঙ্কে রাত জেগে পাহারা

বাংলারজমিন

তিতাস (কুমিল্লা) প্রতিনিধি
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রবিবার

তিতাসে একের পর এক চুরি, ডাকাতির ঘটনায় উপজেলাজুড়ে চোর, ডাকাত আতংক চরম আকার ধারণ করেছে। প্রতিরাতেই উপজেলার কোন না কোন গ্রামে চোর ডাকাত দলের এসব তান্ডবের ঘটনা সামাল দিতে আইনশৃংঙ্খলা বাহিনীও হিমশিম খাচ্ছে। এমন অবস্থায় জনগণের জান-মালের নিরাপত্তার কথা ও শান্তির কথা চিন্তা করে স্থানীয় এমপি সেলিমা আহমাদ মেরীর নির্দেশে এবং তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার ভাই ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ ফকির ভাইয়ের পরামর্শে এবং তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসানুল ইসলামের সার্বিক সহযোগিতায় তিতাসে ডাকাত প্রতিরোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে ডাকাতদের প্রতিহত করতে অতন্ত্র প্রহরীর বেশে রাত জেগে পাহারা দিচ্ছেন তিতাস উপজেলা ছাত্রলীগ। জানা যায়, তারা প্রতিরাতে প্রায় ৩০ জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে ঘুরে ঘুরে রাত জেগে পাহারা দেয়। উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ আহমেদ ফকির জানান, হঠাৎ করে উপজেলাজুরে ডাকাত আতঙ্ক বিরাজ করছে। ডাকাত দল প্রতিদিন রাতে বিভিন্ন বাড়িতে হানা দেয়ার চেষ্টা করছে। তখনই এ ডাকাতদের প্রতিহত করতে এমপি সেলিমা আহমাদ মেরী, উপজেলার চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার ও তিতাস থানা অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আহসানুল ইসলাম এর সমন্বয়ে পুলিশের পাশাপাশি তিতাস উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রাত জেগে পাহারা দেওয়া শুরু করেছে। ইনশাআল্লাহ তাদের এই উদ্যাোগে এলাকায় ডাকাতি অনেকটা রোধ করা সম্ভব হচ্ছে।
ছাত্রলীগ সবসময় মানুষের পাশে ছিলো এবং পাশে থাকবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Md. Emdadul Haque Ba
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৫:৩৩

very good work. proceed on

অন্যান্য খবর