× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৮ এপ্রিল ২০২১, রবিবার

ষড়যন্ত্র করে আমাকে ফাঁসানো হয়েছে: সামিয়া রহমান

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক
(১ মাস আগে) মার্চ ১, ২০২১, সোমবার, ৩:০৮ অপরাহ্ন

গবেষণায় চৌর্যবৃত্তির ঘটনায় পদাবনতি হওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক সামিয়া রহমান দাবি করেছেন, তাকে ষড়যন্ত্র করে অন্যায়ভাবে ফাঁসানো হয়েছে। ‘তাকে বলির পাঁঠা’ বানানো হয়েছে। একই সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে তিনি ন্যায়বিচার পাননি বলে দাবি করেছেন। তাই প্রকৃত সত্য উদ্ঘাটন করার জন্য কর্তৃপক্ষকে কঠোর নির্দেশ দিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য ও রাষ্ট্রপতির কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়ার মধ্যেও আছেন বলে জানান তিনি। আজ সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে সামিয়া রহমান এসব কথা জানান। সংবাদ সম্মেলন আরও উপস্থিত ছিলেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ এবং আইনজীবী তুরিন আফরোজ।

সামিয়া রহমান জানান, যে গবেষণার লেখার জন্য তাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে, সেটা তিনি লেখেননি, জমাও দেননি। এ সংক্রান্ত প্রমাণও তার কাছে আছে।
তিনি বলেন, এই ষড়যন্ত্রের পেছনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কেউ এবং কিছু শিক্ষক জড়িত রয়েছেন। তাদের নাম না বলে সাংবাদিকদের এ বিষয়ে অনুসন্ধানের অনুরোধ জানান তিনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Sarwar
২ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার, ৫:০০

...... মায়ের বড় গলা। নির্লজ্জের একটা সীমা থাকা উচিত।

Idris
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ১০:৫৫

চোরের মার বড় গলা.... শেম শেম

শাহরিয়ার ইসলাম
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ১২:৪৩

সামিয়া ম্যাম আপনি লকডাউনের সময় আপনার নিজ ফেইসবুক এ্যাকাউন্ট থেকে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য একান্তই আপনার মনগড়া কিছু লেখা পোস্ট করেছিলেন আবার কিছুক্ষণ পড়ে সেই পোস্টটি ডিলিট করে দিয়েছিলেন তখন কি আপমান একবারের জন্যও মনেহয়নি যে আপনি সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন। ইট মারলে পাটকেলটি খেতে হয় এটাইতো প্রকৃতির নিয়ম আপনি সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়ে অজানা আতংকে সফল হতে পারেননি কিন্তু আপনার ভাষায় আপনার সহকর্মীরা আপনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে সফল হয়েছেন।

SaChowdhury
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৯:৪৬

All the beautiful people .... !!!!

Akasha
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৬:৪১

এতদিন পর টের পাইলা।

Md. Shahid ullah
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৬:৩৮

”ষড়যন্ত্র” শব্দটির ব্যবহারকারী কারা তা জাতি জানে।

সান্তনু
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৫:০৭

কিভাবে পারেন মিস ? মানে আপনি কি লজ্জারও মাথা খেয়ে বসে আছেন ? আর পাশে নিয়েছেন আরো দুই জননিন্দিত তথাকথিত বুদ্ধিজীবী !! এই দেশ কি আসলেই মাফিয়া রাজ্য হতে যাচ্ছে ?

সান্তনু
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৪:৪১

কিভাবে পারেন মিস ? মানে আপনি কি লজ্জারও মাথা খেয়ে বসে আছেন ? আর পাশে নিয়েছেন আরো দুই জননিন্দিত তথাকথিত বুদ্ধিজীবী !! এই দেশ কি আসলেই মাফিয়া রাজ্য হতে যাচ্ছে ?

Md.Shamsul Alam
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৫:২৮

What a shameless claim! We very unfortunate that characterless like you are appointed in the university & others collaborator like Kalim & Turin present in your conference Those are suspected various criminal activities. Shame Shame Shame

Mohammed Faiz Ahmed
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৪:৫২

পাবলিকসব বুজে,ভুলের জন্য ক্ষমা চাওয়াই ভাল।

Mahmud
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৩:২৪

আপনার দাবী যতি সত্যি হয়ে থাকে , সংবাদ সম্মেলন না করে মামলা করুন এবং মামলা জিতে প্রমান করুন আপনার অবস্থান সঠিক । আর দেশে এতো মানুষ থাকতে পাশে কলিমুল্লাঽ সাহেব আর তুরিন আফরোজ কেনো ? নিজেদের হীন কর্মকান্ডের জন্য তাদেরইতো কোথাও কোন গ্রহনযোগ্যতা নেই । আপনার বিরুদ্দ্ধে অভিযোগটি অত্যন্ত গুরুতর । বিতর্কিত লোকদের পাশে নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করলেই আপনি নির্দোষ হয়ে যাবেন না । আপনাকে প্রমান করতে হবে আপনি নির্দোষ ।

Md. Harun al-Rashid
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৩:৫৫

গবেষণাধর্মী Article হলে এক বিবেচনা আর পি এইচ ডি থিসেস হলে অন্য কথা। যদি পিএইচ ডি থিসেস হয় এবং কথিত অভিযোগ উল্থাপিত না হতো ম্যাডাম কি ডিগ্রি নিতে অস্বীকার করতেন এই বলে যে তিনি কোন থিসেসে জমা দেন নি।

ভেসেল
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ২:৪৭

নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ, আইনজীবী তুরিন আফরোজ আর আপনি সামিয়া রহমান ।। তিন জনই জনধিকৃত, জননিন্দিত ।। দুর্ভাগ্য আমাদের জনগণের যে আপনাদের মতো অপদার্থ কুলাঙ্গারদের বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেয় ।

সচেতন নাগরিক
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ২:২২

বেহায়া বেশরম মহিলা !! সেইসব অপরাধীই নিজেকে নির্দোষ ভাবে যাদের ভিতর কোনো অনুশোচনা বোধ থাকেনা এই রকম অপরাধ করার পরও .... জাতির দুর্ভাগ্য আপনার মত একজন মহিলা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক ....

মুঃওয়াসিউল হক
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ২:২১

আপনি মুরগী কবিরকে সাথে নিয়ে ষড়যন্ত্র করেছিলেন। আপনি মিরগী কবিরের সাথে সুর মিলিয়ে (টকশোতে)বলেছিলেন ৪ খলিফা একে অপরকে হত্যা করেছেন।(নাওজুবিল্লাহ্) আপনার চাকুরী যাওয়া উচিৎ।

অন্যান্য খবর