× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১২ এপ্রিল ২০২১, সোমবার

রায়পুরে আগুনে পুড়ে ২৮ দোকান ছাই

বাংলারজমিন

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি
২ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার খাসেরহাট বাজারে আগুন লেগে ২৮টি দোকান পুড়ে গেছে। ব্যবসায়ীদের দাবি, আগুনে প্রায় ১৫ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আজ মঙ্গলবার ভোর ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে ফায়ার সার্ভিস। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানার ওসিসহ জনপ্রতিনিধিরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।
আবদুল বারেক, আবদুল গনি, সুজন সরকার, ইউসুফ মাঝি, বাচ্চু গাজি, শাহজাহান, মোঃ সুমন, দুলাল মালতিয়া, মোঃ সুজন, আইয়ুব আলী আকন্দ, আবদুল কাদের, শাহ আলম মাঝি, আবু তাহের, মোঃ মোস্তফা, নুর মোহাম্মদ, মোঃ শাহজালাল, রাসেল কারি, মোঃ সোহাগ, মুজাম্মেল, আবুল খায়ের, সবুজ বেপারি, আবদুল কাদের, মোস্তফা বেপারি ও খোরশেদ মুন্সিসহ ২৮ দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এসব দোকানে মুদি, কাপড়, সেলুন, ইলেক্ট্রনিক্স, স্বর্ণালংকার, কাঁচাবাজার ইত্যাদিসহ ব্যবসা করতেন তাঁরা।
এদিকে কিস্তি থেকে ঋণ নিয়ে সবুজ নামের এক ব্যবসায়ী এ ঘটনা সহ্য করতে না পেরে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।
ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী বাচ্চু গাজি ও নুর মোহাম্মদ বেপারি বলেন, আমাদের বাজারের ২৮টি দোকান পুড়ে যাওয়ায় ব্যবসায়ীদের প্রায় ১৫ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। অধিকাংশ ব্যবসায়ীই বিভিন্ন ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে ব্যবসা করছেন।
সরকার ক্ষতিগ্রস্ত এসব ব্যবসায়ীকে সহযোগিতা না করে তা হলে তাদের পথে বসতে হবে।
রায়পুর ফায়ার স্টেশনের ইনচার্জ ওয়াসি আজাদ বলেন, রাত ৪টার দিকে আবু তাহেরের চায়ের দোকান থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। দোকানঘরগুলো কাঠ ও টিনের হওয়ায় মুহূর্তের মধ্যে আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে স্থানীয় জনগণের সহায়তায় প্রায় ২ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। তবে ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক ত্রুটি থেকে এ আগুন লেগেছে। ক্ষয়ক্ষতি নিরুপণের কাজ চলছে।
রায়পুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাবরীন চৌধুরী বলেন, আগুনের ঘটনা শুনেই ভোর ৪টার দিকে ইউপি চেয়ারম্যান ও পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থদের খুব দ্রুত প্রশাসনিকভাবে সহায়তা করা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর