× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার

বিশ্বে প্রথম মাতৃগর্ভে করোনা আক্রান্ত হলো শিশু

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) মার্চ ২, ২০২১, মঙ্গলবার, ৯:৩১ অপরাহ্ন

পেটে প্রচুর ব্যাথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন সম্ভাব্য কোভিড আক্রান্ত এক গর্ভবতী নারী। সুইডেনের স্কেন বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তির পর সেখানকার চিকিতসকরা গর্ভে থাকা শিশুটির শারিরীক কার্যক্রমে কিছু অস্বাভাবিকতা লক্ষ্য করেন। পরীক্ষার পর তারা জানান, শিশুটির হার্টরেট একদমই কমে গেছে। তারা ধারণা করেন, মাতৃগর্ভে শিশুটি পর্যাপ্ত অক্সিজেন পাচ্ছেনা বলেই এমন হচ্ছে। এরপরই জরুরিভিত্তিতে অপারেশন করে ডেলিভারি করেন চিকিতসকরা। জন্মের পরই তার রক্ত পরীক্ষা করে জানা যায়, শিশু ও মা উভয়েই করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

তাদের শরীরে পাওয়া ভাইরাসের জিনোম সিকুয়েন্স বিশ্লেষণ করে নিশ্চিত হওয়া গেছে, মাতৃগর্ভে থাকা অবস্থায়ই শিশুটি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিল। গবেষকরা পরীক্ষা করে দেখেন, মায়ের থেকেই শিশুটি করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।
কিন্তু জন্মের পরপরই শিশুটিকে আইসোলেশনে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। এতেই নিশ্চিত হওয়া যায় শিশুটি জন্মের আগেই করোনা আক্রান্ত ছিল। গবেষকরা বলছেন, এটিই বিশ্বে প্রথম এমন ঘটনা। এর আগে মাতৃগর্ভে বসে করোনা আক্রান্ত হওয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি। বিজ্ঞান বিষয়ক ওয়েবসাইট সায়েন্স এলার্টে এ খবরটি প্রকাশিত হয়েছে৷ সেখানে আরো বলা হয়েছে, শিশুর দেহে থাকা ভাইরাসটির মিউটেশন শনাক্ত করেছেন বিজ্ঞানীরা। জন্মের ৫ দিনের মাথায়ই এই মিউটেশন শুরু হয়। মায়ের গর্ভে থাকার তুলনায় আলাদা পরিবেশে আসায় এই মিউটেশন শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। চারদিনের মাথায়ই ওই শিশুর মা সুস্থ হয়ে যান। তবে শিশুটিকে এখনো পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিত্সকরা।
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর