× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৭ এপ্রিল ২০২১, শনিবার

ভিসি কলিমউল্লাহর দুর্নীতি তদন্তে ফের বেরোবিতে আসছে ইউজিসির টিম

অনলাইন

বেরোবি প্রতিনিধি
(১ মাস আগে) মার্চ ৪, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:২৪ অপরাহ্ন

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) উপাচার্য নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর অনিয়ম-দুর্নীতির এবার ৪৫টি অভিযোগের বিষয়ে সরেজমিনে তদন্ত করতে বিশ্ববিদ্যালয়ে যাচ্ছে মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) আরও একটি তদন্ত কমিটি।
ইউজিসির সিনিয়র সহকারী সচিব ও সংশ্লিষ্ট তদন্ত কমিটির সদস্য সচিব জামাল উদ্দিন স্বাক্ষরিত এক পত্র মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সাত শিক্ষক বরাবর পাঠানো হয়েছে। সেইসঙ্গে এই পত্রের অনুলিপি ভিসির একান্ত সচিবকেও দেয়া হয়েছে। এতে ১৪ই মার্চ বেলা ১১টায় তদন্তকাজ পরিচালনা করা হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।
ভিসির একান্ত সচিব আমিনুর রহমান তদন্ত কমিটির চিঠি পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
জানা যায়, উপাচার্যের বিরুদ্ধে ৪৫টি অভিযোগ তুলে ধরে ২০১৯ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর শিক্ষামন্ত্রী বরাবর একটি চিঠি পাঠান বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সংগঠন বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি কমলেশ চন্দ্র রায় ও সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান। এখন ওই ৪৫ অভিযোগের সরেজমিন তদন্ত করতে রংপুরে আসছে ইউজিসির তদন্ত কমিটি।
উপাচার্যের বিরুদ্ধে আনা ৪৫টি অভিযোগের মধ্যে রয়েছে রাষ্ট্রপতির নির্দেশনা অমান্য করে ক্যাম্পাসে ধারাবাহিক অনুপস্থিতি, ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির ঘটনা ধামাচাপা দেয়া, ইউজিসির নির্দেশনা অমান্য করে জনবল নিয়োগ, শিক্ষক ও জনবল নিয়োগে দুর্নীতি ও অনিয়ম, নিয়োগ বোর্ডের সভাপতি হয়েও অনুপস্থিত থাকা, নিরাপত্তাহীন ক্যাম্পাস, ইচ্ছামতো পদোন্নতি, আইন লঙ্ঘন করে একাডেমিক-প্রশাসনিক পদ দখল, ক্রয়-প্রক্রিয়ায় নীতিমালা লঙ্ঘন ইত্যাদি।
সম্প্রতি বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত ‘বিশেষ উন্নয়ন প্রকল্প’ শেখ হাসিনা ছাত্রী হল ও ড. ওয়াজেদ রিসার্চ অ্যান্ড ট্রেনিং ইনস্টিটিউটসহ স্বাধীনতা স্মারকের নির্মাণকাজে ভিসি অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের অনিয়ম-দুর্নীতির সত্যতা পেয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সরেজমিন তদন্ত কমিটি। দুর্নীতিতে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সুপারিশ করা হয়েছে কমিটির প্রতিবেদনে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিক্ষক মশিউর রহমান বলেন, ‘নানা অনিয়ম-দুর্নীতির ৪৫টি অভিযোগ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী বরাবর পেশ করেছি। তা এত দিন পর তদন্ত দল তদন্ত করতে আসছে। এ মর্মে তদন্ত কমিটির পক্ষ থেকে একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে।
আমরা ওই দিন তদন্ত কমিটির কাছে অভিযোগ প্রমাণের মতো কাগজপত্র নিয়ে উপস্থিত থাকব।’
এ ব্যাপারে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহর মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Anu
৪ মার্চ ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৩:৫৬

এমন পদে বসে অন্যায়ের অভিপ্রায় হলো কি করে। উপচার্যের পদ থেকে সরে যাওয়া বাঞ্চনিয়।

nasir uddin
৪ মার্চ ২০২১, বৃহস্পতিবার, ২:০৭

We the people of this country wonder as to how this man sustained as of now, as the VC of a university..

nasir uddin
৪ মার্চ ২০২১, বৃহস্পতিবার, ২:০৬

We the people of this country wonder as to how this man sustained as of now, as the VC of a university..

Md. Harun al-Rashid
৪ মার্চ ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:৩৯

এমতাবস্হায় তদন্তের নির্বিঘ্ন প্রক্রিয়ার খাতিরে উপচার্যের পদ থেকে সরে যাওয়া বাঞ্চনিয়। এটি চাকুরী নয়- এটি জ্ঞান সৃষ্টির মত এক সারথি দলের দলপতি বা চালক। এমন পদে বসে অন্যায়ের অভিপ্রায় হলো কি করে।

ফারুক হোসেন
৪ মার্চ ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:৩৭

কয়েক দিন সংবাদ পত্রে শিরোনাম হবে। ব্যাস, কিছুই হবেনা।

Shobuj Chowdhury
৪ মার্চ ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১২:৩৪

His Mama Mohiuddin Khan Alamgir steal a whole bank and gets away with it.

অন্যান্য খবর