× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১১ এপ্রিল ২০২১, রবিবার
পর্ব-৬৬

আমাকে শপথ পড়ান জো বাইডেন

এক্সক্লুসিভ

কাজল ঘোষ
৬ মার্চ ২০২১, শনিবার

এলা ও কোলের ক্ষেত্রে এটি সত্য হওয়ায় আমি ছিলাম ভাগ্যবান। সবকিছু খুব দ্রুত আগাচ্ছিল। এ সপ্তাহেই আমি ডগকে নিয়ে উড়াল দিলাম দেশের নবনির্বাচিত সিনেটরদের অভিষেক অনুষ্ঠানে। দল কর্তৃক নির্বাচিত সিনেটর এবং পরিবারবর্গ নিয়ে আয়োজিত এই অভিষেক চলে টানা তিনদিনের ব্যস্ত সেশনে। এই অভিষেকে আমরা সিনেটরের বিধি-প্রবিধি, মূল্যবোধ এবং কীভাবে সিনেট অফিস স্থাপন করতে হবে তা নিয়ে আলোচনা করি। ডগ দাপ্তরিক ঘোষণাগুলো ধর্মগ্রন্থের মতোই পড়ছিল।

আমার দ্বিতীয় প্রধান ব্যক্তি হিসেবে নাথান বারানকিন ক্যালিফোর্নিয়ার ডিপার্টমেন্ট অব জাস্টিসে যোগ দেয় এবং সে ওয়াশিংটন থেকে তার পরিবার নিয়ে চলে আসবে বলে কথা দেয়। আমার টিমের চিফ অব স্টাফ হিসেবে সে কাজ বাছাই এবং বাতিলে নিবিড় প্রক্রিয়া অবলম্বন করতে শুরু করেছিল। ভার্চ্যুয়ালি আমাদের হাতে সময় ছিল শুধুমাত্র নির্বাচনের দিন এবং তারপর নিউ ইয়ারের দিন।
এই অল্প সময়ে পাঁচ হাজার জীবন বৃত্তান্ত থেকে বাছাই করে একটি পদের জন্য নীতি, নির্বাচনী এলাকার সঙ্গে যোগাযোগ, প্রতিনিধিত্ব করতে পারবে এমন আরো অনেক কিছু ভাবতে হচ্ছিল। বৈচিত্র্যপূর্ণ কর্মী বাছাই করা আমার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল। যার মধ্যে রয়েছে প্রবীণ নারী ও কৃষ্ণাঙ্গ। আমি ওয়াশিংটন থেকে তাদেরকে নিয়োগ দিতে চাচ্ছিলাম এবং আমার প্রাদেশিক কার্যালয়ে আমি সেইসব মানুষদেরই নিয়োগ দিতে চাচ্ছিলাম আমি যাদের প্রতিনিধিত্ব করি।

এলা এখন হাই স্কুলের সিনিয়র ক্লাসের ছাত্র। এর অর্থ হচ্ছে ডগকে এখন থেকে প্রতি এক সপ্তাহ পর পর লস অ্যানজেলেস যেতে হবে। এটা খুবই কঠিন সময় এলার জন্য। সিনেটর হওয়ার আগে আমি তাদেরকে সাঁতারে সময় দিতাম এবং বাস্কেটবল খেলার সময় থাকতাম। কারস্টিন এবং আমি এলাকেই একসঙ্গে বিব্রত করে দিতাম যখন খেলার মধ্যে আমরা দুজন তার নাম ধরে চিৎকার করতাম। আমার কাছে খারাপ লাগছে আমি এই খেলাগুলোয় এখন আর অংশ নিতে পারছি না। আমার খারাপ লাগছে এই ভেবে যে, আমি এখন তাদেরকে পর্যাপ্ত সময় দিতে পারছি না। বিশেষ করে সে যখন কলেজে যাওয়া-আসা করছে সে সময়। কয়েক বছর আগে কোলের ক্ষেত্রেও একইরকম ঘটনা ঘটেছিল। আমি কথা দিয়েছি অনেক বছর পর তাদের কাছে ছুটে যেতে উড়াল দেবো। এটা নানা কারণেই জরুরি। আমার নির্বাচনী এলাকা দেখা, ভোটারদের জানার চেষ্টা এবং সাংঘাতিকভাবে সানডে ফ্যামিলি ডিনার তৈরির জন্য।

এর মধ্যে সবচেয়ে বাজে ঘটনা ছিল আমি ক’মাস আগেই অনুষ্ঠিত এলার গ্রাজুয়েশন অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারিনি। বরখাস্তকৃত এফবিআই জেমস কমেকে পরীক্ষার পূর্বে ডাকা সিনেট ইন্টিলিজেন্স কমিটির সভা এবং একইদিন রাশিয়ার তদন্ত কমিটির করা আমাদের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বৈঠকে অংশগ্রহণ না করে কোনো উপায় ছিল না। আমি যখন তাকে এ কথাগুলো বলছিলাম সে চমৎকারভাবে তা বুঝেছিল কিন্তু আমি বিব্রতবোধ করছিলাম। এরপর আমি আমার বেশ ক’জন নারী সহকর্মীর সঙ্গে এ বিষয়টি নিয়ে কথা বলি। ম্যাগি হাসান আমাকে ধরেই বলেন, আমরা যা করছি এবং আমাদের কাজ ও ত্যাগের জন্য আমাদের সন্তানরা আমাদের ভালোবাসে। সে বলে, তারাও এটি বুঝতে পারে। এলা ও কোলের ক্ষেত্রে এটি সত্য হওয়ায় আমি ছিলাম ভাগ্যবান। যখন শুনানি শেষ হলো আমি এয়ারপোর্টে ছুটলাম এবং উড়াল দিলাম ক্যালিফোর্নিয়া। আমি গ্র্যাজুয়েশন সেরিমনিতে যেতে না পারলেও ঠিক সময়ে রাতে ফ্যামিলি ডিনারে যোগ দিয়েছিলাম।

ডগ এবং আমি অস্থায়ী ভিত্তিতে একটি অ্যাপার্টমেন্ট ভাড়া নেই ক্যাপিটল হিলের কাছাকাছি। সেখানে ছিল খুবই সামান্য আসবাবপত্র। এর মধ্যে রয়েছে কয়েকটি টুল, একটি খাট, একটি ফোল্ডিং করা সোফা এবং বড় স্ক্রিনের টেলিভিশন। ঘটনা এত দ্রুতই আগাচ্ছিল যে, আমরা কেনাকাটা এবং রান্নাবান্নার জন্য যথেষ্ট সময় দিতে পারছিলাম না। তারপরেও আমি সপ্তাহে একদিন টার্কি চিলি রান্না করতাম এবং পুরো সপ্তাহের জন্য খাবার ফ্রিজে রেখে দিতাম। ২০১৭ সালের ৩রা জানুয়ারি আমার শপথ পড়ান ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। অন্য সিনেটরদের অফিসের পাশেই আমি নতুন অফিস নেই। যেখানে সকল সিনেটরেরই কোনো কার্যালয় ছিল না সেখানে আমি গোয়েন্দা, এফবিআই, বাজেট এবং নাগরিক পরিষেবা সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম পরিচালনা করতাম।
কমালা হ্যারিসের অটোবায়োগ্রাফি
‘দ্য ট্রুথ উই হোল্ড’ বই থেকে

 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর