× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার

ধামরাইয়ে মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকি, থানায় জিডি

বাংলারজমিন

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি
৬ মার্চ ২০২১, শনিবার

ঢাকার ধামরাইয়ে এক ইটভাটার মালিক ও তার সহযোগীদের হামলার ঘটনায় মামলা করে হুমকির মুখে পড়েছেন বাদী। মামলার আসামিরা জামিনে এসে মামলা প্রত্যাহারের হুমকি দিচ্ছে। মামলা তুলে না নিলে তাকে প্রাণে মেরে ফেলবে বলে এলাকায় প্রচার করছে। এতে বাদী ও তার পরিবার চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে। এ ঘটনায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ধামরাই থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন ভুক্তভোগী।
জানা গেছে, ধামরাইয়ের সোমভাগ ইউনিয়নের ডাউটিয়া ইউএসএ নামক একটি ইটভাটায় ইট ক্রয়কে কেন্দ্র করে তর্কের একপর্যায়ে ভাটার মালিক মনির হোসেন ও তার কয়েকজন সহযোগী দুই ব্যবসায়ী জসীম উদ্দিন ও রাজুর ওপর হামলা চালায়। এ সময় তাদের হাত-পা ও মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে। পরে ৯৯৯ ফোন দিলে পুলিশ এসে হামলাকারীদের হাত থেকে উদ্ধার করে ব্যবসায়ী রাজু ও জসীমকে। এ ঘটনায় ধামরাই থানায় জসীম উদ্দিনের ভাই ওয়াসিম আকরাম বাদী হয়ে মনির হোসেন, রুমা, আব্দুর রহমান, ইমরান, সজীবসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে ধামরাই থানায় মামলা দায়ের করেন।
মামলা নং ৩২। আসামিরা মামলা থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে বাদীকে থানা থেকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য চাপ দেয়। এতে তিনি রাজি না হলে তাকে কালামপুর বাসস্ট্যান্ডে মামলা তুলে না নিলে জীবন শেষ করে ফেলার হুমকি দেয়। পরে ধামরাই থানায় নিরাপত্তা চেয়ে একটি জিডি করেন মামলার বাদী ওয়াসিম।
মামলার বাদী ওয়াসিম সাংবাদিকদের জানান, ওই ইটভাটায় অনেকের লাখ লাখ টাকার ইট কেনা আছে। কিন্তু ভাটার মালিক মনির সেই ইট আনতে গেলেই তাদের ওপর হামলা করে। আমার ভাই জসীমও তার ভাটায় টাকা পাবে বলে জানান। তিনি দ্রুত মনিরের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান।


 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর