× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২২ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার

ভালো নেই কিশোর, হাসপাতালে নানা পরীক্ষা

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার
৬ মার্চ ২০২১, শনিবার

ভালো নেই সদ্য কারামুক্ত কার্টুনিস্ট আহমেদ কবীর কিশোর। তিনি কারাগারে থাকার সময় প্রায় নয় কেজি ওজন হারিয়েছেন, ডায়াবেটিসের মাত্রা বেড়েছে, কানে পুঁজ জমে শুনতে সমস্যা হচ্ছে, ঠিকমতো হাঁটতে পারেন না। এ ছাড়াও তার কথা বলতে সমস্যা হচ্ছে। কোনো কিছু স্মরণ করতেও অসুবিধা হচ্ছে। ১০ মাস কারাভোগের পর গত বৃহস্পতিবার জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর পরই ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন কিশোর। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের অধীনে তিনি চিকিৎসাধীন আছেন। হাসপাতালে তার কান ও চোখের পরীক্ষা করা হয়েছে। করা হয়েছে বাঁ পায়ের এক্সরেও।
তবে পায়ে অত্যধিক ব্যথার কারণে কিশোরের হাঁটতে কষ্ট হচ্ছে। আপাতত কিশোরের কাছ থেকে মোবাইল দূরে রাখা হয়েছে। যেসব পরীক্ষা করা হচ্ছে, আজকালের মধ্যে তার প্রতিবেদন পাওয়া যাবে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

কিশোর মুক্ত হওয়ার পর গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন যে, তাকে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর অজ্ঞাত স্থানে ৬৯ ঘণ্টা কার্টুন নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছে। এরপর স্টিলের পাত বসানো লাঠি দিয়ে পায়ে পেটাতে থাকে তারা। শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালানো হয়েছে। তারা কানে মারার কারণে কান দিয়ে রক্ত পড়তে থাকে। কানে পুঁজও জমেছে।
এ বিষয়ে কিশোরের ভাই আহসান কবির গতকাল মানবজমিনকে জানান, কিশোরের ৯ কেজি ওজন কমেছে। ব্লাডে সুগারের মাত্রা বেড়েছে। তিনি আরো জানান, কিশোরকে ধরে নিয়ে যাওয়ার পর নির্যাতন করা হয়েছে বলে সে পরিবারকে জানিয়েছে। হঠাৎ কিছু স্মরণ করতে পারছে না। সময় নিয়ে স্মরণ করছে।

২০২০ সালের ৫ই মে কার্টুনিস্ট কিশোর এবং লেখক মুশতাক আহমেদকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। সরকারবিরোধী প্রচার ও গুজব ছড়ানোর অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাদের বিরুদ্ধে রমনা থানায় মামলা করা হয়। একই মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া আরো দু’জনের জামিন হলেও কিশোর ও মুশতাকের জামিন হয়নি। এর মধ্যে মুশতাক গত ২৫শে ফেব্রুয়ারি কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে মারা যান। তার মৃত্যু নিয়ে ঢাকাসহ সারা দেশে আন্দোলনে নামে প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনসহ অন্যান্য সংগঠন। তবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে তদন্ত রিপোর্টের বরাতে জানানো হয়েছে, তার মৃত্যু স্বাভাবিকভাবেই হয়েছে। বুধবার হাইকোর্ট কিশোরকে ছয় মাসের জামিন দেয়।

 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Nayeem
৫ মার্চ ২০২১, শুক্রবার, ১২:১৭

কারাগারের ১০মাসে কিশোরের প্রায় নয় কেজি ওয়েট লস্ট, কানে পুঁজ জমা ও শুনতে সমস্যা হওয়া, কালশিটে পড়া পায়ে ঠিকমতো হাঁটতে না পারা, ডায়াবেটিসের মাত্রা বৃদ্ধি, স্মরণ শক্তি হ্রাস পাওয়া- এসব কিছুও কি স্বাভাবিক? নাকি সংক্ষুব্ধ ব্যক্তির আত্মপক্ষ সমর্থন?

অন্যান্য খবর