× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২৩ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার, ১০ রমজান ১৪৪২ হিঃ

পীরগঞ্জে অভিযানের পর ফের চালু ১৯ অবৈধ ইটভাটা

বাংলারজমিন

পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি
৭ মার্চ ২০২১, রবিবার

পীরগঞ্জ উপজেলায় ১৯টি লাইসেন্স বিহীন ইটভাটার কার্যক্রম নির্বিঘেœ চলছে। সম্প্রতি ১টি ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে ভাটার একাংশ ভেঙে আগুন নিভিয়ে ভাটা বন্ধসহ ১  লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। পরে ৩০ দিনের মধ্যে ভাটা সরিয়ে নেয়ার জন্য মালিকের মুচলেকা নেয়া হলেও ঐদিনই পুনরায় ভাটা চালু হওয়ায় জনমনে প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।
জেলা প্রশাসক’র তথ্য মতে পীরগঞ্জে কোন ইটভাটা নেই। ইটভাটাতে ইট পোড়ানোর পূর্বে জেলা প্রশাসক কার্যালয় হতে ইট পোড়ানোর জন্য ফায়ারিং সার্টিফিকেট নেওয়া বাধ্যতামূলক হলেও সনদপত্র ছাড়াই নিজ খেয়াল খুশিমত ১৯ টি ইটভাটায় ইট পোড়ানোর কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ফলে প্রতিমুহূর্তে পরিবেশ বিঘিœত হচ্ছে।
পীরগঞ্জ উপজেলায় চালু ভাটার মধ্যে ১. এম.বি ব্রিক -গুয়াগাঁও, প্রোঃ শাহাজাহান আলী ২. এস.এস.বি ব্রিক-দৌলতপুর, প্রোঃ রেজওয়ানুল হক বিপ্লব ৩. এমএনএস ব্রিক-সিন্দুর্না-প্রোঃ কশিরুল আলম ৪. এসবিবি ব্রিক-ভেলাতৈড়, প্রোঃ শাহাজাহান ৫. ডিআর ব্রিক-গুয়াগাঁও, প্রোঃ আবিদ আকবর ৬. এসবিএস ব্রিক-গুয়াগাঁও, প্রোঃ বেলাল হোসেন ৭. বি.বি.এস ব্রিক-ভেলাতৈড়, প্রোঃ বাবলা/বাদল ৮. এবি.এস ব্রিক-ভেলাতৈড়. প্রোঃ বজলার রহমান ৯. মেসার্স নিপা ব্রিক-২-শিমুলবাড়ি প্রোঃ মোঃ লিয়াকত আলী মন্ডল ১০. এম.এল ব্রিক-গড়গাঁও, প্রোঃ মতিউর রহমান ১১. এম.এ.এস ব্রিক-দক্ষিণ মাধবপুর, প্রোঃ আব্দুল মান্নান, ১২. এ ব্রিক-বৈরচুনা, প্রোঃ রেজা করিম চৌধুরী ও মহসিন আলী  ১৩. এস.আর.বি ব্রিক-বৈরচুনা, প্রোঃ খাইরুল ইসলাম ১৪. জে.আর ব্রিক-সিন্দুর্না, প্রোঃ-জয়নাল আবেদীন ১৫. এস.বি.এস ব্রিক-সিন্দুর্না, প্রোঃ বেলাল হোসেন ১৬.এন.বি ব্রিক-আরাজী উজ্জ্বলকোঠা প্রোঃ নরেশ চন্দ্র রায় ১৭.এস.বি ব্রিক-নানুহার, প্রোঃ মামুনুর রশিদ ১৮.সেভেন ব্রাদার্স ব্রিক্লÑপাড়িয়া প্রোঃ জাহিদুল ইসলাম (জাহিদ) ১৯. এস.বি
সূত্র জানায়, ভাটা মালিক সমিতি নামে একটি আন-রেজিস্টার্ড সমিতি খুলে প্রতিবছর এই অবৈধ ভাটাগুলো চালানো হয়। সংশ্লিষ্টদের ম্যানেজের জন্য প্রতিটি ভাটা থেকে ৩ থেকে ৪ লক্ষ টাকা আদায় করা হয়। বাস্তবে জেলা প্রশাসন, ভোক্তা অধিকার, পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা এ বিষয়ে দৃশ্যমান কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেন না।

২০শে ডিসেম্বর মানবজমিনে ‘পীরগঞ্জে অনুমোদনহীন ১৯ ইটভাটা, হুমকির মুখে পরিবেশ’ শিরোনামে সংবাদ পরিবেশনের পর গত ২৪ জানুয়ারী পরিবেশ অধিদপ্তর এর উদ্যগে ঠাকুরগাও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট গোলাম রব্বানী সরদার পৌরশহরের এমবি ব্রিকফিল্ডে অভিযান পরিচালনা করে বুলডোজার দিয়ে ভাটার আগুন নিভিয়ে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। পরে ভাটা মালিকের মুচলেকা নিয়ে ভাটা সরিয়ে নেয়ার জন্য ৩০ দিনের সময় দেয়া হয় কিন্তু মোবাইল কোর্ট’র নির্দেশ উপেক্ষা করে তাৎক্ষণিক ইট পোড়ানো শুরু করা হয় এবং ভাটা মালিক সমিতির সভা ডেকে পুনরায় চাঁদা আদায় করা হয়। বিষয়টি স্থানীয়দের মনে নানা প্রশ্নের উদ্রেক করেছে।

এ ব্যাপারে পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রেজাউল করিমের মতামত চাওয়া হলে বলেন, অভিযোগের সত্যতা পেলে বিধিগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Md. Shahid ullah
৭ মার্চ ২০২১, রবিবার, ৬:০৫

যারা পরিবেশবাদী আন্দোলন করেন তারা নিশ্চয়ই টিনের চাউনি আর বাঁশের বেড়া ঘরে বসবাস করেন না। কৃষি জমির মাটি কাটা নিষিদ্ধ, মাটি পরিবহনে চাঁদাবাজী তাহলে ইট তৈরি হবে কী দিয়ে? মাটি ছাড়া কী ইট হয়?

অন্যান্য খবর