× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার

লাইফ সাপোর্টে নায়ক শাহীন আলম

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার
৮ মার্চ ২০২১, সোমবার

লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন এক সময়ের ব্যস্ত চিত্রনায়ক শাহীন আলম। দীর্ঘদিন ধরে তিনি কিডনি ও ডায়াবেটিস রোগে ভুগছিলেন। অবস্থার অবনতি হলে শনিবার রাতে তাকে আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চিত্রনায়ক ওমর সানি। এ নায়ক বলেন, শাহীন আলম আমার বন্ধু। একসঙ্গে পথ চলা আমাদের৷ অভিনয়ে অসাধারণ। দীর্ঘ সময় চলচ্চিত্রের বাইরে। কিছুদিন আগে ওকে দেখতে গিয়েছিলাম।
শুনলাম ওর কিডনি দুইটাই বিকল, ডায়ালাইসিস করছে বেশ কিছুদিন যাবৎ।

গতকাল ওর ছেলে ফোন দিয়েছিল শুধু বলল- আঙ্কেল বাবা লাইফ সাপোর্টে, করোনা পজিটিভ। নিজেকে কন্ট্রোল করতে কষ্ট হচ্ছিল। এমনিতেই কিডনি চিকিৎসায় ব্যয়বহুল ব্যাপার তারপর আবার লাইফ সাপোর্ট। ওর পরিবারের অবস্থা ভালো। কিন্তু এইভাবে খরচ হলে রাজার ভাণ্ডারও তো শেষ হয়ে যায়। আল্লাহকে বলি, তুমি সুস্থতা দান করো, বন্ধুকে ফিরিয়ে দাও। এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সহযোগিতার আকুল আবেদন জানিয়ে পরিবারের পক্ষ থেকে শাহীন আলমের একমাত্র ছেলে ফাহিম নূর আলম মানবজমিনেক জানান, আমার বাবার চিকিৎসার জন্য প্রতিদিন এক লাখের বেশি খরচ হচ্ছে। যেহেতু তিনি স্বনামধন্য একজন চলচ্চিত্র শিল্পী ছিলেন। আশা করবো এই মূহুর্তে প্রধানমন্ত্রীর আমাদের পাশে থাকবেন। আর্থিকভাবে সাহায্য করার আবেদন করছি। আমার বাবাকে আরও অনেক দিন বাঁচিয়ে রাখতে চাই। সবাই দোয়া করবেন। ১৯৮৬ সালে নতুন মুখের সন্ধানের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান শাহীন আলম। তার অভিনীত প্রথম সিনেমা ‘মায়ের কান্না’। এটি ১৯৯১ সালে মুক্তি পায়। এর পরে আরো অনেক ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। বর্তমানে চলচ্চিত্র থেকে দূরে রয়েছেন শাহীন আলম। নিজের ব্যবসা নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর