× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২২ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার
মামুনুল ইস্যু-

ওসির পর নারায়ণগঞ্জের এডিশনাল এসপিকে বদলী

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(২ সপ্তাহ আগে) এপ্রিল ৬, ২০২১, মঙ্গলবার, ৬:১৮ অপরাহ্ন

সোনারগাঁওয়ে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে রিসোর্টে অবরুদ্ধ করার ঘটনার পর ওই রাতেই সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলামকে প্রত্যাহার করে জেলা পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়। এবার নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) টি এম মোশাররফ হোসেনকে বদলী করা হয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান মঙ্গলবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তবে তিনি এই বদলীকে ‘রুটিন মোতাবেক’ বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, গত ৫ই এপ্রিল রাতে তাকে খুলনা পুলিশ রেঞ্জে বদলি করা হয়েছে।

গত ৩রা এপ্রিল রাতে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক সোনারগাঁয়ের একটি রিসোর্টে স্ত্রীসহ অবরুদ্ধ হওয়ার পর ব্যাপক ভাঙচুর করেন তার কর্মী-সমর্থকরা। এ ঘটনায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগকে দায়ী করে রাতেই উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ও নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সোহাগ রনির ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান, বাড়িঘরে ব্যাপক ভাঙচুর চালান হেফাজতের কর্মী-সমর্থকরা।

ওই দিন ঘটনাস্থলে গিয়ে মামুনুল হককে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) টি এম মোশাররফ হোসেন। জিজ্ঞাসাবাদ চলার মধ্যেই তাকে ছিনিয়ে নিয়ে যান হেফাজত নেতাকর্মীরা। যদিও পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, মামুনুলকে হেফাজত নেতাকর্মীদের হাতে তুলে দেয়া হয়।

 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Raju
৭ এপ্রিল ২০২১, বুধবার, ৫:৫১

মামুনুল সাহেব দোষী বা নির্দোষ এটা তদন্তাধীন বিষয়,তবে দাঁড়ি বা ৫ ওয়াক্ত নামাজী হলেই কিন্ত লিষ্ট হয়ে যেতে হচ্ছে.... আমরা কি ধর্ম বিহীন রাষ্ট্র বা উওর কোরিয়ার মতো চির জীবন এক দলীয় শাষনে চলে যাচ্ছি....

Abul quasem
৭ এপ্রিল ২০২১, বুধবার, ৩:০৮

আমি বুঝেউটতে পারি না বেশিরভাগ আলীম বিবাহিত ও বাচ্চাদের মাকে কেন বিবাহ করেন।

Yasin Khan
৭ এপ্রিল ২০২১, বুধবার, ২:২৬

বদলী আর বহিস্কার করে নিজেদের অপরাধ আড়াল করার পরিবর্তে মুখোশ উন্মোচিত হবে।

F. M. MEHEDI
৭ এপ্রিল ২০২১, বুধবার, ১১:৪৪

নিজের স্ত্রী নিয়ে ঘুরতে যাওয়া কোন অপরাধ না। এটা তার অধীকার। যাদের জ্ঞানের লেভেল সে সেই রকমক মন্তব্য করে। আসুন আমরা সত্য যেনে মন্তব্য করি। আমরা কেহ চোখ থাকতে অন্ধ না হই।

ddulaldey Daydey
৬ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার, ৯:১৯

এক জন আলেম কেনো ঐ জাতীয় জাগায় যেতে হবে ।? তাও আবার গরমিল নারী কে একা সংগে করে, ।

নাজমুল ইসলাম
৭ এপ্রিল ২০২১, বুধবার, ৯:৪০

১৭ জনের মায়ের চোখের পানি এখনও ঝরছে। আহতরা কাতরাচ্ছে। এ অবস্থায় নারী নিয়ে মৌজ করতে বিলাসবহুল কক্ষ ভাড়া করে কোন সুস্থ মস্তিষ্কের মানুষ রিফ্রেস হতে যায় না। সেই তো বললো একটু রিফ্রেস হতে সেখানে গিয়েছিলো। এর পক্ষ যারা নিয়েছে ওরা অন্ধ। ওদের বিবেক বুদ্ধি বলতে.............................!

Mahmud
৬ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার, ৯:২৯

মামুনুলের সাথে তার প্রথম স্ত্রীর কথোপকথন , তার তথাকথিত দ্বিতীয় স্ত্রীর সাথে তার সন্তানের কথোপকথন এবং সেই সন্তানের ফেসবুকে দেয়া বক্তব্যে বুঝা যায় মামুনুল হক একটা চরিত্রহীন লোক ।তার লামপট্টের কারনে সহিদুল সাহেবের সংসার ভেঙেছে । এহেন ব্যক্তিকে হেফাজতের সমর্থন জাতির জন্য লজ্জার । হেফাজতের শীর্ষ ব্যক্তিদের মুল্যবোধ নিয়ে প্রশ্ন উঠাটা অস্বাভাবিক নয় ।

আনসার উদ্দিন মিয়া।
৬ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার, ৮:৪৫

নিশ্চয়ই ভেজাল আছে, তিনি ভাল কাজ করলে মিথ্যা কেন বললেন?

Nejam Kutubi
৬ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার, ৭:১৫

টি এম মোশাররফ হোসেনের দাড়িঁ আছে। এরত চাকরিই থাকবেনা...

ওমর ফারুক
৬ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার, ৬:০৭

মামুনুল অপকির্তী করে অনেককে হয়রানির শিকারে ফেলছে। মামুনুল কি সত্যিকারে তার ২য়( বৈধ) স্ত্রীকে নিয়ে সেদিন রিসোর্টে গিয়েছিল? নিজ বাসাবাড়ি চেড়ে ঐ নারীকে নিয়ে কোন উদ্দেশ্যে মামুনুল রিসোর্টে রাত্রী যাপনের জন্য অধিক মূল্যের একটি কক্ষ ভাড়া নেয় ও তার প্রথম স্ত্রীর নাম কেন রিসোর্টের অতিথী ডায়রীতে নাম লিপিবদ্ধ করায়? এতে রহস্য বিদ্যমান। ঘটনার পর মামুনঁল বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছে ঘটনাটিকে বৈধ্যতা প্রমাণের জন্য। তা ই বা কেন? একজন মুসলমান হয়ে ইসলাম ধর্মের বিরুদ্ধ কাজ করে তাকে বৈধ্যতা দেয়ার অপচেষ্টা কেন? জাতী জানতে চায় মামুনুলের এরুপ অপকৌশল অবলম্বনের কারন কি। হেফজত ইসলামের নেতারা ই বা মামুনুলের এ নোংরামিকে বৈধ্যতা দিচ্ছেন কেন?

আফনান পারভেজ
৬ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার, ৬:২৩

ডাল মে কুছ কালা হ্যায় !

অন্যান্য খবর