× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিমত-মতান্তরবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে কলকাতা কথকতাসেরা চিঠিইতিহাস থেকেঅর্থনীতি
ঢাকা, ২৫ মে ২০২২, বুধবার , ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৩ শওয়াল ১৪৪৩ হিঃ

বুদ্ধিজীবীর আবার দল কী?

ফেসবুক ডায়েরি

মোহাম্মদ মজিবুর রহমান
২০ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার

এদেশে সর্বক্ষেত্রে বুদ্ধিবৃত্তিক যে শূন্যতা বিরাজমান তা আমরা পদেপদে টের পাচ্ছি।

একাত্তরে বুদ্ধিজীবীদের হত্যার মধ্যদিয়ে যে বুদ্ধিবৃত্তিক শূন্যতার সূত্রপাত তা পূর্ণতা পায় পরবর্তীতে অধিকাংশের ব্যক্তিগত সুবিধা লাভের আশায় নীতি-নৈতিকতা বিসর্জন দিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলে অন্ধ ও নি:শর্ত আত্মসমর্পণের মাধ্যমে। দু:খজনক হলেও সত্য এ ধারা দিন দিন ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

শিক্ষক, সাংবাদিক, সাহিত্যিক, আইনজীবী, চিকিৎসক ও আমলাদের অধিকাংশই আজ নির্লজ্জ দলীয় রাজনীতির সর্বনাশা মিছিলে সামিল।

ফলশ্রুতিতে যা হওয়ার তাই হচ্ছে!

কোন দলের প্রতি ব্যক্তিগত পছন্দ-অপছন্দ, সমর্থন থাকাটা স্বাভাবিক। কিন্তু তাই বলে দলের অন্যায়কে মেনে নেয়া, চুপ থাকা এবং কখনো কখনো সেই অন্যায়ের পক্ষে সাফাই গাওয়া? আবার একই অন্যায় অন্যপক্ষ করলে রাজপথ ও মিডিয়া উত্তপ্ত করে ফেলা?! তাহলে সাধারণ রাজনৈতিক নেতাকর্মীর সাথে বুদ্ধিজীবীর তফাৎ কোথায়?

রাষ্ট্রের বিদ্যমান বুদ্ধিবৃত্তিক শূন্যতা দূরীকরণে সর্বাগ্রে বুদ্ধিজীবীদের দলীয় খোলস পরিত্যাগ করা জরুরি।

বুদ্ধিজীবীর আবার দল কী?!

লেখকঃ সহযোগী অধ্যাপক,
শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট,
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।
লেখাটি ফেসবুক থেকে নেয়া।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর