× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৬ অক্টোবর ২০২১, শনিবার , ১ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ
কলকাতা কথকতা

বিষপানে আত্মহননের চেষ্টা করা পাঁচ শিক্ষিকা বিজেপির ক্যাডার, শিক্ষামন্ত্রীর ফেসবুক পোস্টে চাঞ্চল্য

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা
(১ মাস আগে) আগস্ট ২৬, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৯:৪৮ পূর্বাহ্ন

বদলির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ আন্দোলনে সামিল পাঁচ শিক্ষিকার সল্ট লেকের বিকাশ ভবনের সামনে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টাকে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু কটাক্ষ করেছেন। তিনি তার দীর্ঘ ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, এই পাঁচ শিক্ষিকা বিজেপির ক্যাডার। বাম আমলের থেকে এই মমতার আমলে অনেক বেশি সুযোগসুবিধা তারা পেয়েছেন। শিক্ষমন্ত্রীর এই ফেসবুক পোস্টের বিরুদ্ধে বিশিষ্ট সিপিএম নেতা ও কলকাতার প্রাক্তন মেয়র বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য পাল্টা টুইট করে বলেছেন, ব্রাত্য বসু আসলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-এর পোষা ক্যাডার।
যে পাঁচ শিক্ষিকা তাদের বদলির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর বিকাশ ভবনের সামনে ইঁদুর মারার বিষ খেয়ে আত্মহননের চেষ্টা করেন, তারা হলেন পুতুল জানা মন্ডল, অনিমা দাস, ছবি চাকি দাস, শিখা দাস ও জ্যোৎস্না দাস। এদের মধ্যে পুতুল, জ্যোৎস্না ও শিখার অবস্থা আশংকাজনক। এরা প্রত্যেকেই চাকরির স্থায়িত্বকরণ ও শিক্ষা দপ্তরের অধীনে আসার জন্য আন্দোলনে গিয়েছিলেন। কিন্তু, তা পরিবর্তিত হয় বদলির বিরুদ্ধে আন্দোলনে। জানা গেছে পাঁচ শিক্ষিকার মধ্যে দুজনকে শালবনী ও মুর্শিদাবাদ থেকে বদলি করে দেওয়া হয় জলপাইগুড়িতে।
পাঁচ শিক্ষিকার আত্মহননের প্রচেষ্টার বিষয়টি নিয়ে আরও রাজনৈতিক জল ঘোলা হওয়ার সম্ভাবনা রয়ে গেল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Kazi
২৫ আগস্ট ২০২১, বুধবার, ৯:০১

এরা কি সত্যিই মরে গেল ? না কি বাঁচানো সম্ভব ?

অন্যান্য খবর