× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৬ অক্টোবর ২০২১, শনিবার , ১ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ
কলকাতা কথকতা

ছেলে কার? প্রশ্নবানে জর্জরিত নুসরাতের পাশে দাঁড়ালেন তসলিমা নাসরিন

কলকাতা কথকতা

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা
(১ মাস আগে) আগস্ট ২৭, ২০২১, শুক্রবার, ১০:০০ পূর্বাহ্ন

ছেলে কার, এবার প্রকাশ্যে বাবার নাম বলুন- বৃহস্পতিবার নুসরাতের পুত্রসন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়া নেটওয়ার্কে এই প্রশ্ন উত্তাল। অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর থেকেই নুসরাত তার সন্তানের বাবা কে? সেই সম্পর্কে মুখে কুলুপ এঁটেছেন। নুসরাতের একদা জীবনসঙ্গী নিখিল জৈন এই সন্তানের দায় ঝেড়ে ফেলার সঙ্গে সঙ্গে এই প্রশ্ন অবধারিত ভাবে উঠে এসেছে তাহলে নিশ্চিতভাবেই নুসরাতের সাম্প্রতিক প্রণয়ী যশ দাসগুপ্তই সন্তানের পিতা। যদিও যশ কিংবা নুসরাত এ ব্যাপারে মুখ খুলেননি। এই অবস্থায় বাংলাদেশের বিতর্কিত, নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন নুসরাতের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তার সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে নুসরাতেরই তারিফ করে তিনি বলেছেন, সিঙ্গেল মাদার হিসেবে নুসরাত সন্তানকে ভালোভাবেই মানুষ করবে। সে উপার্জনশীল একজন নারী। তার ইচ্ছামত সন্তান নেয়ার অধিকার আছে।
তসলিমা লিখেছেন- স্পার্ম কার সেটা কোনো প্রশ্ন হতে পারে না। এখনতো বিজ্ঞানের অগ্রগতির সঙ্গে সঙ্গে মেয়েদের শরীর থেকেও স্পার্ম উৎপাদিত হচ্ছে? সুতরাং, নুসরাতের সাহসকে কুর্নিশ করা উচিত। তিনি নিজে সন্তানের মা হন নি বলে কোনো আক্ষেপ নেই তসলিমার। লিখেছেন, তার এক বোনের সন্তান হয় নি বলে সে উৎকণ্ঠায় তাই যাবতীয় প্রতিভাকে জলাঞ্জলি দিয়েছিল। আবার এক ঘনিষ্ঠকে তিনি দুই অপদার্থকে জন্ম দিতে দেখেছেন। তাই তার কোনো আক্ষেপ নেই।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Zaman
৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১১:৪২

ভারতীয় কোন নেগেটিভ নিউজ প্রকাশ না করাই শ্রেয়।

Kyser Ahmed
২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার, ২:৩৯

মানবজমিন কে অনুরোধ করবো তসলিমার কোনো কথা না ছাপাতে। এটা সমাজের জন্য মঙ্গলকর হবে। ছাপানোর জন্য অনেক খবর আছে দেশে।টাকার লোভ একজন নারীকে কোন পর্যায়ে নিয়ে যায় নুসরাত তার জ্বলন্ত প্রমাণ। একজন মুসলিম মেয়ের এই অবস্থা দেখে লজ্জায় মুখ ঢাকতে ইচ্ছে করে। এরা মুসলমান নামের কলংক।

nasir uddin
২৯ আগস্ট ২০২১, রবিবার, ৪:১০

rotone roton cheney

জামশেদ পাটোয়ারী
২৭ আগস্ট ২০২১, শুক্রবার, ২:২৩

টাকার লোভ একজন নারীকে কোন পর্যায়ে নিয়ে যায় নুসরাত তার জ্বলন্ত প্রমাণ। একজন মুসলিম মেয়ের এই অবস্থা দেখে লজ্জায় মুখ ঢাকতে ইচ্ছে করে। এরা মুসলমান নামের কলংক। কেমন তার মা-বাবা, হয়তো তারাও মেয়ের রোজগারকেই বড় মনে করে। আখেরাত নিয়ে তাদের কোন উদ্বেগ নাই।

মোঃ ফরহাদ মিয়া
২৬ আগস্ট ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১১:২৫

মানবজমিন কে অনুরোধ করবো তসলিমার কোনো কথা না ছাপাতে। এটা সমাজের জন্য মঙ্গলকর হবে। ছাপানোর জন্য অনেক খবর আছে দেশে।

তরিকুল
২৬ আগস্ট ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১০:২১

আসলে সন্তানের জন্মদাদার প্রশ্ন যারা করছে এগুলো এক একটা অপদার্থ। ভাই আপনি যদি এতই ধর্ম ওয়ালা হও তো সমাজের ঐ এক কোনার ঐ নষ্ট আর রঙিন অংশটাকে বাদ দিয়ে চলেন না। চামড়া আর রূপ বিক্রি করে খাওয়া তো ওদের পেশা। ওদের আপনি ধর্মের শিক্ষা দিতে যান কেন? আমরা ব্যতিক্রম কাকে বলি? যা তার গোত্রের নিয়মের বাইরে চলে তাই ব্যতিক্রম। তাহলে আপনি এই চামড়া আর রূপ বিক্রি করাদের আপনার সমান্তরাল ধরবেন কিনা তা আপনার বিবেচনার বিষয়। আপনি তাকে সন্তানের বিষয়ে প্রশ্ন করতে পারেন না। এ দিক দিয়ে তসলিমার কথা শত ভাগ ঠিক। তবে আমার একটা প্রশ্ন আর একটা সাজেশন আছে। প্রশ্ন: তসলিমার মা কী তসলিমার বাবার স্পার্ম (sparm) নিয়ে তসলিমার মতো অপদার্থ বা জারজ জন্ম দিয়েছে ( "এক ঘনিষ্ঠকে তিনি দুই অপদার্থকে জন্ম দিতে দেখেছেন।" এই সূত্র অনুযায়ী)? সাজেশন: সমাজের চামড়া বিক্রি করা শ্রেণী এখন থেকে স্পার্ম (sparm) তসলিমার কাছ থেকে নিবেন। ( কিন্তু এটা ঐ অপদার্থদের দ্বারা সম্ভব হবে না, কারন তসলিমার স্পার্ম (sparm) নিয়ে দুই ছবিতে কাজ করে তো আর সাত তারকা হোটেলে থাকা, ভি আই পি এলাকায় বাড়ি আর সুপার কার কেনা সম্ভব না!!!

কাজি
২৬ আগস্ট ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৯:৫০

যার নিজের পায়ের তলায় মাটি নেই সে কি সাহায্য করবে ? হাঁ তসলিমার কথা বলছি ।

অন্যান্য খবর