× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার , ২ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

রাজধানীতে ৪ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার
১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, সোমবার

 রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় চারজনের অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে। তারা হচ্ছেন, শাহবাগে আব্দুল আউয়াল (৫৫), কদমতলীতে ধনু মিয়া (৬০), আজমপুরে সামিয়া (৩৮) ও ক্যান্টনমেন্ট রেলগেটে অজ্ঞাত এক নারী। গতকাল দুপুরে শাহবাগের গণপূর্ত অধিদপ্তরের সামনে বাসের ধাক্কায় আব্দুল আউয়াল নামে এক রিকশাচালকের মৃত্যু ঘটে। এ ঘটনায় আরও তিনজন আহত হয়েছেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেপরোয়া গতির একটি যাত্রীবাসী বাস মোটরসাইকেল ও একটি রিকশাকে চাপা দেয়। এ সময় গুরুতর আহত হন রিকশাচালক আব্দুল আউয়াল। তাৎক্ষণিকভাবে আউয়ালকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত আউয়ালের ভাতিজা বাবু মিয়া জানান, আব্দুল আওয়ালের গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর চরকামালপুরে।
কামরাঙ্গীরচরের আচারওয়ালা ঘাট কাদের মিয়ার রিকশার গ্যারেজে থাকতেন। তিনি এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক ছিলেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া জানান, এ ঘটনায় বাসটি জব্দ ও চালককে আটক করা হয়েছে। আজমপুরে সামিয়া নিহতের ঘটনায় সম্পর্কে ঢাকা রেলওয়ে থানার বিমানবন্দর পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই সাকলাইন জানান, গতকাল সকালে উত্তরার আজমপুর রেলগেট এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় সামিয়ার মৃত্যু ঘটে। সামিয়া উত্তরার একটি বাসায় কাজ করতেন। থাকতেন উত্তর বাড্ডা এলাকায়। ধারণা করা হচ্ছে, কাজে যাওয়ার সময়ে দূর্ঘটনার শিকার হয়েছেন। তার বাবার নাম নুরুল ইসলাম খান।
গ্রামের বাড়ি ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায়। তার স্বামী মৃত মোহাম্মদ আলী। এছাড়াও এসআই সাকলাইন আরও জানান, গতকাল সকালে ক্যান্টনমেন্ট রেলগেট এলাকায় ঢাকা থেকে সিলেট ছেড়ে যাওয়া পারাবত এক্সপ্রেসের নিচে কাটা পড়ে ঘটনাস্থলে এক ব্যক্তি মারা যান। তার পরিচয় পাওয়া যায়নি।
কদমতলী এলাকায় নিহত ধনু মিয়া পেশায় জুতা ব্যবসায়ী ছিলেন। জুরাইন আলম মার্কেট থেকে জুতা কিনে তিনি এলাকায় তা বিক্রি করতেন। গত শনিবার তিনি জুতা কেনার জন্য মার্কেটে যান। এ সময় ওই মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় শৌচাগারে গেলে দীর্ঘক্ষণ না ফেরায় মার্কেটের লোকজন পুলিশকে খবর দেন। কদমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জামাল উদ্দিন মীর জানান, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি স্ট্রোক করে মারা গেছেন। গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর থানার বলিয়ারদীতে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর