× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ সফর ১৪৪৩ হিঃ

বৃটিশ হাইকমিশনের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সিসিকের মতবিনিময়

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার

বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও প্লাস্টিক বর্জ্য পুনর্ব্যবহার পদ্ধতি বিষয়ে সিলেট সিটি করপোরেশন ও ঢাকাস্থ বৃটিশ হাইকমিশনের প্রতিনিধিদলের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুরে নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সভায় গ্রেটার ম্যানচেস্টার-এর পক্ষে ঢাকাস্থ বৃটিশ হাইকমিশনের একটি প্রতিনিধিদল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও প্লাস্টিক বর্জ্য পুনর্ব্যবহার পদ্ধতি নিয়ে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এ সময় সিসিকের বর্তমান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, হাসপাতাল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব নিয়ে আলোচনা করা হয়। এ সময় সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে অতি বৃষ্টি, খরা, মাটিতে লবণের আধিক্য দেখা দিচ্ছে। জলবায়ুর বিরূপ প্রভাবে গ্রামীণ মানুষ প্রতিনিয়ত শহর ও নগরমুখী হচ্ছেন। এতে নগরের বস্তি এলাকাগুলোতে জনসংখ্যার চাপ বাড়ছে। প্রতিনিধিদলের প্রধান ঢাকাস্থ বৃটিশ হাইকমিশনের ক্লাইমেট চেঞ্জ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট বিষয়ক সিনিয়র পরামর্শক জন ওয়ারবারটন বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় সিসিকের চলমান প্রকল্পসমূহের প্রশংসা করেন এবং প্লাস্টিক বর্জ্য পুনর্ব্যবহার পদ্ধতি বাস্তবায়নে গ্রেটার ম্যানচেস্টারের আগ্রহের কথা জানান। ঢাকাস্থ বৃটিশ হাইকমিশনের প্রতিনিধিদলের সদস্য বৃটিশ কাউন্সিলের বাংলাদেশের পরিচালক টম মিশোওশায়া বলেন, সিলেট সিটি করপোরেশন এবং ম্যানচেস্টার সিটির মধ্যে ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে।
এই দুই সিটির মধ্যে শিক্ষা এবং সংস্কৃতি বিষয়ক একটি উৎসব আয়োজন করতে চান তারা। পরে সিসিক মেয়র প্রতিনিধিদলকে নিয়ে সিসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনার বিভিন্ন প্রকল্প ঘুরিয়ে দেখান। অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রতিনিধিদলকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও ক্রেস্ট প্রদান করেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। এসময় উপস্থিত ছিলেন, সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও সরকারের অতিরিক্ত সচিব বিধায়ক রায় চৌধুরী, সিসিকের প্রধান প্রকৌশলী নূর আজিজুর রহমান, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আব্দুল আজিজ, সচিব ফাহিমা ইয়াসমিন, সম্পত্তি কর্মকর্তা ইয়াসমিন নাহার রুমা, প্রধান রাজম্ব কর্মকর্তা মো. মতিউর রহমান খান, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট সুনন্দা রায়. বৃটিশ কাউন্সিলের সিলেট সেন্টারের প্রধান মো. কফিল উদ্দিন চৌধুরী, কনসালটেন্ট মনির আলম চৌধুরী, নির্বাহী প্রকৌশলী রুহুল আলম, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. হানিফুর রহমান, চিফ এসেসর চন্দন দাশ, মেয়রের সহকারী একান্ত সচিব সোহেল আহমদ, জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুল আলিম শাহ, মেয়রের ব্যক্তিগত সহকারী মো. মুহিবুল ইসলাম ইমন, বৃটিশ হাইকমিশনের এফসিডিও আনোয়ারুল হক প্রমুখ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর