× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৮ অক্টোবর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ১৩ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

জনগণ যতদিন চাইবে, আওয়ামী লীগ ততদিন দেশ শাসন করবে: তথ্যমন্ত্রী

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১, শুক্রবার, ৫:০০ অপরাহ্ন

জনগণ যতদিন চাইবে আওয়ামী লীগ ততদিন দেশ শাসন করবে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। শুক্রবার দুপুরে রাজধানীতে সরকারি বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মন্তব্য ‘আওয়ামী লীগ চিরস্থায়ী ক্ষমতার জন্য বিএনপির ওপর নির্যাতন করছে’ এর জবাবে ড. হাছান বলেন, আওয়ামী লীগ জনগণের ক্ষমতায় বিশ্বাসী, জনগণ যতদিন চাইবে ততদিন আওয়ামী লীগ দেশ পরিচালনা করবে, এর একদিনও বেশি নয়। গত ১৩ বছরে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যেভাবে দেশ এগিয়েছে, প্রতিটি নাগরিকের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়েছে, তাতে মানুষ বঙ্গবন্ধুকন্যা ও আওয়ামী লীগের ওপর সন্তুষ্ট। পেট্রোলবোমা দিয়ে জীবন্ত, ঘুমন্ত মানুষ পুড়িয়ে হত্যাকারী, অবরোধের নামে মানুষকে অবরুদ্ধকারী বিএনপির সাথে তো জনগণের থাকার কথা নয়। বিএনপি নিজেরাই জনগণের প্রতিপক্ষ হয়ে নানা কর্মসূচি দিয়ে জনগণের কাছ থেকে অনেক দূরে সরে গেছে। বিরোধীদল দমনেও আওয়ামী লীগ বিশ্বাসী নয় উল্লেখ করে ড. হাছান বলেন, সন্ত্রাসী, পেট্রোলবোমা নিক্ষেপকারী বা ফৌজদারি অপরাধের আসামীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলে যদি বিএনপি অপরাধীদের পক্ষ নেয়, তাহলে তো দেশে কোনো ফৌজদারি আইনই কার্যকর করা যাবে না, বিচারও থাকবে না। সুতরাং বিএনপির এসমস্ত কথা হাস্যকর।
বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের লাশ নিয়ে সাম্প্রতিক যে বিতর্ক তৈরি হয়েছে সে প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, চন্দ্রিমায় জিয়ার লাশ থাকার কোনো প্রমাণ কোথাও নেই। সংসদে এবিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া বক্তব্য সম্পর্কে প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী যথার্থই বলেছেন, জিয়ার লাশ কেউ দেখেননি। হাছান মাহমুদ বলেন, আমি রাঙ্গুনিয়ার মানুষ, যেখানে জিয়াকে প্রথম সমাহিত করা হয় বলে বিএনপি দাবি করে। রাঙ্গুনিয়া উপজেলার তখনকার চেয়ারম্যান জহির সাহেব এখনো জীবিত। তিনি বলেছেন, তিনটি লাশ সেখান থেকে তোলা হয়েছিল, তার মধ্যে জিয়াউর রহমানের লাশ ছিলো না। এরশাদ সাহেব এবং জিয়াউর রহমানের ঘনিষ্ঠজন মীর শওকত দু'জনেই বলেছেন, তারা কেউ জিয়ার লাশ দেখেননি। চন্দ্রিমা থেকে কবরটি সরিয়ে ফেলার বিষয়ে প্রশ্ন করলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, লাশ ছাড়া কবর দাবি করা যেমন জনগণের সাথে প্রতারণা, তেমনি ইসলামের নিয়ম-নীতিবিরুদ্ধ। লাশ ছাড়া কবর রাখার কোনো কারণ আছে কি না, সেটিই জনগণের প্রশ্ন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
quamrul
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, শনিবার, ৮:০৭

আহা কি মধুর বানী । জনগনের প্রতি সীমাহীন শ্রদ্ধা????

পারভেজ সাজ্জাদ
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ১০:১৭

জনাব মন্ত্রী, আপনি কি এইসব মন্তব্য পড়েন?

Desher Bhai
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ৮:৪৫

The Bangladeshi people want you to quit right at this moment.

ফুজায়েল আহমদ
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ৬:৪২

ধ্বজভঙ্গ নির্বাচন কমিশনকে দিয়ে একতরফা নির্বাচন করেছেন আবার বলতেছেন আপনাদেরকে জনগণ চায়!! যদি সত্যিই বুকে সাহস থাকে তাহলে সুষ্ঠ নির্বাচন দিয়ে দেখেন!?দেখেন আপনাদের জনপ্রিয়তা!!

‌মোঃ মাহাম
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ৬:০৩

ভারতীয় সুরা পান ক‌রে চাঙ্গা দেখা‌চ্ছে ।

মোঃ মনিরুজ্জামান
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, শুক্রবার, ৫:০০

ক্ষমতা ছেড়ে নির্বাচনে আসলে বুঝা যাবে জনগণ আপনাদের চায় নাকি আপনারা ক্ষমতা চান।

অন্যান্য খবর