× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৬ অক্টোবর ২০২১, শনিবার , ১ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

সাংবাদিক আবদুর রহিম হুমায়ুনের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, শনিবার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বড়াইল ইউনিয়নের জালশুকা গ্রামের বিশিষ্ট সমাজসেবক, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও সাংবাদিক প্রয়াত আবদুর রহিম হুমায়ুন-এর ৩৩তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। এ উপলক্ষে মরহুমের গ্রামের বাড়িতে মিলাদ ও কোরআন খতমের আয়োজন করা হয়েছে। আবদুর রহিম হুমায়ুন ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রহিম বিজনের পিতা। ১৯৮৮ সালের ১৮ই সেপ্টেম্বর ইন্তেকাল করেন তিনি।
আবদুর রহিম হুমায়ুন ছিলেন তদানীন্তন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সাদেকপুর পশ্চিম ইউনিয়নের (বর্তমানে নবীনগর উপজেলার বড়াইল ইউনিয়ন) চেয়ারম্যান। অত্যন্ত ন্যায়-নিষ্ঠা, সততা ও সুনামের সঙ্গে ১৯৬৩ থেকে ১৯৭৩ সাল পর্যন্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। মুক্তিযুদ্ধকালীন নিজ এলাকায় মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তায় তার অবদান অসামান্য। এজন্যে বারবার পাকবাহিনীর রোষাণলে পড়তে হয় তাকে।  মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তা করায় ভৈরব রানীর বাজারে নিজস্ব ভিটিতে পরিচালিত তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়িয়ে দেয় পাকবাহিনী।
নিজ এলাকায় আওয়ামী লীগের রাজনীতি এবং সংগঠনকে সুদৃঢ় করার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে তার। নবীনগরের এ অঞ্চলে আওয়ামী রাজনীতির ঠিকানা ছিলেন আবদুর রহিম হুমায়ুন এবং তার পরিবার।
আবদুর রহিম হুমায়ুন স্বাধীনতা উত্তরকালে সাংবাদিকতা পেশায় নিয়োজিত হন। ঢাকায় ‘দৈনিক কিষান’ এবং ‘দৈনিক বাংলার মুখ’ সংবাদপত্রে তার সাংবাদিতকা জীবন শুরু হয়।  মৃত্যুর আগ পর্যন্ত বৃহত্তর কুমিল্লার পাঠকপ্রিয় সংবাদপত্র ‘দৈনিক রূপসী বাংলা’র একজন সিনিয়র সাংবাদিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর