× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৮ অক্টোবর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ১৩ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

বরগুনায় প্রক্সি আসামির দুই বছর কারাদণ্ড

বাংলারজমিন

বরগুনা প্রতিনিধি
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, শনিবার

বরগুনা আদালতে মূল আসামির পরিবর্তে প্রক্সি দিতে আসা মো. আল আমীন রুবেল নামের একজনকে দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাকে এক হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১৫ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। গত বৃহস্পতিবার বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. নাহিদ হোসেন এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত মো. আল আমিন রুবেল বরগুনা জেলার পাথরঘাটা এলাকার মো. দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। জানা যায়, বরগুনা জেলার পাথরঘাটা থানার চার্জশিটভুক্ত আসামি ছিল সুজন। ২০১৭ সালের ৮ই আগস্ট আসামি মো. আল আমিন নিজের আসল পরিচয় গোপন রেখে আসামি সুজনের পরিচয় প্রদান করে ওইদিন সকাল ১০টায় আদালতে হাজির হয়ে জামিন চায়। ওই সময় তার জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।
পরে আল আমীনের আইনজীবী আবদুল ওয়াসী মতিন আসামির প্রক্সি দেয়ার বিষয়টি আদালতের নজরে আনলে স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের বিচারক হাছানুজ্জামান আসামির জাতীয় পরিচয়পত্র পরীক্ষা করে প্রক্সি দেয়ার ঘটনা প্রাথমিকভাবে সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় আসামি আল আমীন রুবেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করতে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ প্রদান করেন। বরগুনা সদর থানার উপ-পরিদর্শক মো. মোতালেব জোমাদ্দার বাদী হয়ে আসামি আল আমীন রুবেলের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধি আইনে ৪১৯ ধারায় মামলা দায়ের করেন। বরগুনা থানার উপ-পরিদর্শক সামশুন নাহার আসামি আল আমীন রুবেলের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারায় আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। বিচারিক আদালত ৮ জনের মধ্যে ৫ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে বৃহস্পতিবার এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার পরে আসামির আইনজীবী আহসান হাবিব স্বপন বলেন, আমরা আদালতের কাছে ক্ষমা চেয়েছি। সাক্ষীদের জেরা করেছি। তারপরও সাজা দিয়েছে আদালত। আমরা উচ্চ আদালতে আপীল আবেদন করবো।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর