× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৬ অক্টোবর ২০২১, শনিবার , ১ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

৯ মাস ধরে কমিউনিটি ক্লিনিকে ঝুলছে তালা

বাংলারজমিন

সাওরাত হোসেন সোহেল, চিলমারী (কুড়িগ্রাম) থেকে
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, রবিবার

৯ মাস ধরে তালা ঝুলছে চিলমারীর একটি কমিউনিটি ক্লিনিকে। স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হাজারো মানুষ। মাসের পর মাস সেবা বঞ্চিত থাকলেও নজর নেই কর্তৃপক্ষের। বাড়ছে ক্ষোভ, বাড়ছে হতাশা। রোগীদের ভরসা এখন ঝাড়ফুঁক আর কবিরাজ। জানা গেছে, চিলমারী উপজেলা ৬টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। এর মধ্যে ৩টি ইউনিয়ন নদীর মধ্যে অবস্থিত। স্বাস্থ্যসেবার কথা চিন্তা করে বর্তমান সরকার হাতে নেয় কমিউনিটি ক্লিনিক।
সেসময় উপজেলার চিলমারী ইউনিয়নে চর কড়াই বরিশাল কমিউনিটি ক্লিনিকটিও নির্মাণ হয়।  হাজারো মানুষের একমাত্র স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত লাভ করে ক্লিনিকটি। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে প্রায় ৯ মাস ধরে বন্ধ থাকায় স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন এলাকাবাসী। সূত্র জানায়, কমিউনিটি ক্লিনিকে সেবা দিয়ে থাকেন সিএইচসিপির, এফডাবলুএ, এফপিআই ও এফডাবলুভি। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এফডাবলুএ হিমায়ারা লিজা চর কড়াই বরিশাল কমিউনিটি ক্লিনিক থেকে বদলি হয়ে চলে যান রমনা ইউনিয়নে। এফডাবলুভি শাহানাজ বদলি হয়ে এখন উলিপুরে। এলাবাসীর অভিযোগ এফপিআই আলমগীর হোসেনের মূল দায়িত্ব চিলমারী ইউনিয়ন থাকলেও সবসময় থানারহাট ইউনিয়নে থাকেন। তারা আরও বলেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানার পরেও অজ্ঞাত কারণে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। গত বছর ১৫ই ডিসেম্বর এই কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপি (কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার) মশিউর রহমান অন্যত্র বদলি হওয়ায় এটি বন্ধ হয়ে যায়। এরপর থেকে ক্লিনিকটি আর খোলা হয়নি।
চিলমারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. গওছল হক বলেন, ‘আমার ইউনিয়নে সাড়ে ১৫ হাজার মানুষের জন্য দু’টি কমিউনিটি ক্লিনিক রয়েছে। এর একটি প্রায় ৯ মাস ধরে বন্ধ রয়েছে। ক্লিনিকটি চালু করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার বলেছি কিন্তু কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।
চিলমারী উপজেলা হেলথ ইন্সপেক্টর বাবুল কুমার বলেন, ‘সিএইচসিপি মশিউর রহমান অন্যত্র বদলি হওয়ার পর এই ক্লিনিকটি বন্ধ হয়ে যাওয়ার বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি। বিষয়টি জানা নেই জানিয়ে কুড়িগ্রাম সিভিল সার্জন ডাক্তার হাবিবুর রহমান বলেন, খোঁজ নিয়ে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর