× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৮ অক্টোবর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ১৩ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

স্কটল্যান্ডে যুবক খুন, বিয়ানীবাজারে গ্রামের বাড়িতে শোকের মাতম

বাংলারজমিন

বিয়ানীবাজার (সিলেট) প্রতিনিধি
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, রবিবার

কিশোর বয়সে পারিবারিক প্রয়োজনে লন্ডনে পাড়ি জমিয়েছিলেন সেলিম উদ্দিন (৩৬)। দীর্ঘ ২০ বছরেও আর বাড়ি ফিরেননি তিনি। অবৈধ অভিবাসী হিসেবে লন্ডনের বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে কাজ করেছেন। সংসারে সচ্ছলতা এনেছেন, পাকা বাড়ি করেছেন। তবে সেই বাড়িতে আর ফেরা হয়নি সেলিমের। মাসতিনেক আগে লন্ডনে বৈধভাবে বসবাসের সুযোগ পেয়েছেন। অচিরেই দেশে ফিরে প্রিয়জনদের সান্নিধ্য পেতে উদগ্রীব ছিলেন সেলিম। বিয়ে করার কথা ছিল, কনেও নাকি খুঁজছিলেন তার পরিবারের সদস্যরা।
কিন্তু কোনো স্বপ্নই আর সফল হয়নি তার। স্কটল্যান্ডের একটি ইন্ডিয়ান রেস্টুরেন্টে শুক্রবার সন্ধ্যায় কথাকাটাকাটির জের ধরে সহকর্মীর ছুরিকাঘাতে নির্মমভাবে খুন হন সেলিম উদ্দিন। তার গ্রামের বাড়ি বিয়ানীবাজার উপজেলার পৌর শহরাধীন ফতেহপুর গ্রামে। তার পিতার নাম মৃত সাদ উদ্দিন ওরফে সাদই মিয়া। নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, হত্যাকারীকে ছুরিসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তার করেছে লন্ডনের পুলিশ। এ ঘটনায় সেখানকার বাঙালি কমিউনিটিতেও শোকের আবহ বিরাজ করছে। এদিকে নিহতের গ্রামের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। স্বজনদের আহাজারিতে হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়েছে। গ্রামের লোকজন তাদের সান্ত্বনা দেয়ার চেষ্টা করছেন। সেলিম দীর্ঘসময় লন্ডন থাকাকালে বাবা-মা দু’জনই হারিয়েছেন। তারা ২ ভাই ও ২ বোন। নিহতের আরেক ভাই ইকবাল হোসেন ফ্রান্সে বসবাস করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর