× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৪ অক্টোবর ২০২১, রবিবার , ৯ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

রাজশাহীতে অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক খুন

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী থেকে:
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার

রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার কুমারপাড়া ঘোষপাড়া এলাকায় নিজ বাড়িতে অবসরপ্রাপ্ত এক প্রধান শিক্ষক খুন হয়েছেন। গতকাল দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শয়নকক্ষের মেঝেতে পড়ে থাকা অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করে। নিহত শিক্ষকের নাম মায়া রাণী ঘোষ (৭০)। তিনি নিজ বাড়িতে একাই বসবাস করতেন। এদিকে খবর পেয়ে পুলিশ ও সিআইডি’র তদন্ত দল সুরতহার রিপোর্ট তৈরি করে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করে। নিহতের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে সুরতহাল রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে। নিহত মায়া রাণী ঘোষ সর্বশেষ মুন্নুজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন। সেখান থেকে তিনি ২০১০ সালে অবসরে যান।
পুলিশ সূত্র জানায়, গতকাল দুপুরে একই এলাকায় বসবাস করা পালিত মেয়ে পুতুল রাণী মায়ের খোঁজ নিতে এসে দেখেন গলায় ওড়না প্যাঁচানো ও মুখ বাঁধা অবস্থায় নিথর দেহ পড়ে আছে। তার চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন। পরে পুলিশ ও সিআইডি ঘটনা তদন্তে মাঠে নামে। বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ বলেন, ঘরের মেঝেতে তার লাশ পাওয়া গেছে। তার স্বর্ণালংকার ও মোবাইল ফোন পাওয়া যায়নি। এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে শ্বাসরোধে তাকে হত্যা করে এসব নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ওসি আরও বলেন, সকাল ১০টার দিকে ঘোষ তার বাড়িতে দুধ দিয়ে আসে। এরপরই বাড়ি ভাড়া নেয়ার জন্য দুইজন লোক বাড়িতে এসেছিল বলে ঘোষ পুলিশকে জানিয়েছে। নিহত নারীর পালিত মেয়ে, তার স্বামী ও ঘোষকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। আমরা আশা করছি, দ্রুত এই হত্যাকাণ্ডের ক্লু উদ্ধার করা সম্ভব হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর