× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার , ৩ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ
বিমানবন্দরে আরটি-পিসিআর ল্যাব বসবে কবে?

উৎকণ্ঠায় ৫০,০০০ প্রবাসী

প্রথম পাতা

সিরাজুস সালেকিন
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার দুই সপ্তাহ পার হলেও বিমানবন্দরে বিদেশগামী যাত্রীদের দ্রুত কোভিড-১৯ পরীক্ষার জন্য বসেনি আরটি-পিসিআর ল্যাব। সাতদিনের মধ্যে দেশের তিনটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এ ল্যাব স্থাপনের নির্দেশনা থাকলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি এতদিনেও। এতে উৎকণ্ঠায় সময় পার করছেন প্রায় ৫০ হাজার প্রবাসী। এসব প্রবাসী সংযুক্ত আরব আমিরাতে যেতে চান। তাদের মধ্যে অন্তত ৪০ হাজার প্রবাসী রয়েছেন যারা রিটার্ন টিকিট নিয়ে দেশে এসেছিলেন। পরে করোনা পরিস্থিতির কারণে যেতে পারেননি। তারা এখন যাওয়ার চেষ্টা করছেন। এ ছাড়া নতুন করে যেতে চান এমন যাত্রীও রয়েছেন।
জনশক্তি রপ্তানিকারকদের সংগঠন বায়রার একজন নেতা জানিয়েছেন, অন্তত ৫০ হাজার যাত্রী অপেক্ষায় আছেন। এই সংখ্যা বেশিও হতে পারে। তবে প্রকৃত সংখ্যাটি কতো তার সুনির্দিষ্ট তথ্য নেই কারও কাছে।

ওদিকে র‌্যাপিড কোভিড টেস্টের শর্তের কারণে প্রবাসীরা আটকা পড়লেও ল্যাব স্থাপন নিয়ে কোনো অগ্রগতি দেখা যাচ্ছে না। প্রাথমিকভাবে যে ছয়টি প্রতিষ্ঠানকে ল্যাব স্থাপনের অনুমতি দেয়া হয়েছে তাদের প্রোফাইল সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাঠানো হয়েছে। সেখানকার অনুমোদন পাওয়া গেলে তারা কার্যক্রম শুরু করতে পারবে। এ কারণে কবে নাগাদ এসব ল্যাব স্থাপন হতে পারে সে বিষয়ে কোনো নির্দিষ্ট তারিখ জানাতে পারেনি প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশে ভ্রমণের ক্ষেত্রে ৪ থেকে ৮ ঘণ্টার মধ্যে কোভিড নেগেটিভ সনদ সঙ্গে থাকার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এরমধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাত কর্তৃপক্ষ র‌্যাপিড আরটি-পিসিআর মেশিনে এই পরীক্ষা করানোর শর্ত বেঁধে দিয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশে বিমানবন্দরে পিসিআর ল্যাব স্থাপনের দায়িত্ব পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে র‌্যাপিড পিসিআর মেশিন না থাকায় এ নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া প্রতিষ্ঠানগুলোর জমা দেয়া স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) সংযুক্ত আমিরাত থেকে চূড়ান্ত না হওয়ায় এই কাজে কোনো অগ্রগতি হচ্ছে না। গতকাল ওই মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইমরান আহমেদ জানিয়েছেন, ২ থেকে ৩ দিনের মধ্যে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মধ্যে আরটি-পিসিআর মেশিন বসতে পারে। তবে বাকি দুই বিমানবন্দরে কবে নাগাদ পিসিআর মেশিন বসতে পারে সে বিষয়ে তিনি কিছু বলেননি। বিমানবন্দরে কোভিড পরীক্ষার সুযোগ না থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছেন দেশে আটকে পড়া প্রবাসীরা। প্রতিনিয়তই তারা প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় কিংবা বিমানবন্দরে ধরনা দিচ্ছেন পিসিআর মেশিন স্থাপনের দাবিতে। তারা কয়েক দফা বিক্ষোভও করেন। সর্বশেষ প্রবাসী কল্যাণ ভবনের সামনে বিক্ষোভ করার সময় প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী দ্রুত ল্যাব স্থাপনের আশ্বাস দিয়েছিলেন।

বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক কামরুল ইসলাম জানান, দুবাইতে ফ্লাইট পরিচালনা প্রস্তুতি তাদের আছে। যাত্রীদেরও চাপ আছে। কিন্তু করোনা পরীক্ষার শর্তের কারণে যাত্রীরা যেতে পারছেন না। ল্যাব স্থাপনের প্রক্রিয়াটি যে প্রক্রিয়ায় এগোচ্ছে তাতে তা সময়সাপেক্ষ মনে হচ্ছে। ১৫ই সেপ্টেম্বর সাত বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার আরটি-পিসিআর পরীক্ষাগার বসাতে নির্বাচিত করে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়। এরমধ্যে ছয়টি প্রতিষ্ঠান স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) জমা দেয়। এসব এসওপি যাচাই করতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাঠানো হয়। তবে এর জবাব সংযুক্ত আরব আমিরাত কর্তৃপক্ষ এখনো দেয়নি। র‌্যাপিড আরটি পিসিআর ল্যাব বসানোর কথা শর্তে বলা হলেও শুধু আরটি-পিসিআর ল্যাব বসানোর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের প্রোফাইল দুবাইতে পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন পেলে তারা কাজ শুরু করতে পারবে। এদিকে গতকাল বিমানবন্দরে পিসিআর ল্যাব স্থাপনের কার্যক্রম পরিদর্শনে গিয়ে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, ২ থেকে ৩ দিনের মধ্যেই আরটি-পিসিআর মেশিন বসানো হবে। তবে র?্যাপিড পিসিআর মেশিন আমাদের কাছে নেই। এটা বিদেশ থেকে আনতে হবে। যার জন্য কিছুটা সময় লাগবে। আশা করছি ৭ থেকে ১০ দিনের মধ্যে আমরা এ মেশিন এনে বসাতে পারবো। যাদের এসব মেশিন বসানোর অনুমতি দেয়া হয়েছে, তাদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এক সপ্তাহের মধ্যে কাজ শুরু করতে হবে। প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রীর সঙ্গে বিমানবন্দরে পরিদর্শনে ছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন। এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিমানবন্দরে পিসিআর ল্যাব স্থাপনের কাজ যাদের দেয়া হয়েছে, তারা দ্রুতই কার্যক্রম শুরু করবে। ল্যাবটি কোথায় বসানো যায়, সেটি দেখতে এসেছি। পার্কিংয়ে সব ধরনের সুবিধা নিয়েই ল্যাব বসানো হবে। একটু সময় লাগলেও এটি করা হবে। এরআগে, গত শনিবার বিমানবন্দরের কার পার্কিং ইয়ার্ডে বিদেশগামী কর্মীদের করোনা পরীক্ষার জন্য আরটি-পিসিআর ল্যাব স্থাপনের সাইট পরিদর্শন ক?রেন মন্ত্রী ইমরান।

সেদিন মন্ত্রী বলেছিলেন, বিমানবন্দরে আগামী তিন থে?কে চারদি?নের মধ্যেই ল্যাব স্থাপনসহ আরটি-পিসিআর কার্যক্রম শুরু হবে। আর সোমবার বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, বিমানবন্দরে আরটি-পিসিআর ল্যাব স্থাপন করতে চাওয়া ছয় প্রতিষ্ঠানের স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) অনুমতি পেলে ল্যাব স্থাপনের কাজ শুরু হবে। শাহজালাল বিমানবন্দরে আরটি-পিসিআর ল্যাব করার পরিকল্পনা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ছিল না। এখন ৭টি প্রতিষ্ঠানকে নির্বাচিত করা হয়েছে। এদের মধ্যে ছয়টি প্রতিষ্ঠান যে এসওপি জমা দিয়েছে তা সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাঠানো হয়েছে। এগুলো যেন আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখা হচ্ছে। ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনা পরীক্ষার আরটি-পিসিআর ল্যাব বসানোর কাজ পাওয়া ৭ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে করোনাভাইরাস শনাক্তের পরীক্ষায় অনিয়মের অভিযোগে দুটি ল্যাবের কার্যক্রম বন্ধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। টাকার বিনিময়ে করোনা পজেটিভ ব্যক্তিকে নেগেটিভ রিপোর্ট দেয়া, নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষায় নানা অনিয়মের কারণে এসব ল্যাবে বিদেশগামী যাত্রীদের নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Liton
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার, ৮:৪২

সরকারের এডমিনিস্ট্রেটিব ডিপার্টমেন্ট এবং বায়রা, সবাই করাপ্টেড। এরা এজেন্সি গুলোকে সুযোগ করে দিচ্ছে। এরা চাচ্ছে, প্রবাসীরা যেন বিভিন্ন এজেন্সির মাধ্যমে তৃতীয় কোন দেশ হয়ে রিটান টিকেট থাকার পরও ১০০,০০০ টাকার অধিক খরচ করে তাদের গন্তব্য যেতে। অনেক প্রবাসীরা এভাবেই যাচ্ছে। কারন তাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। এজেন্সি গুলো এর সুবিধা নিচ্ছে।

ANISUR RAHMAN
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, বুধবার, ১২:৪০

DEAR PRIME MINISTER KINDLY ARRANGE PCR LAB AS SOON AS POSSIBLE PLEASE . THANKS

অন্যান্য খবর