× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৬ অক্টোবর ২০২১, মঙ্গলবার , ১০ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

চীনের শানসি প্রদেশে বন্যায় ১৫ মৃত্যু, নিখোঁজ ৩

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ সপ্তাহ আগে) অক্টোবর ১২, ২০২১, মঙ্গলবার, ১:১১ অপরাহ্ন

অব্যাহত ভারি বর্ষণে বন্যা দেখা দিয়েছে চীনের উত্তরাঞ্চলীয় শানসি প্রদেশে। এতে কমপক্ষে ১৫ জন মারা গেছেন। নিখোঁজ রয়েছেন তিনজন। রাষ্ট্রীয় মিডিয়ার খবরে এ কথা বলা হয়েছে। উল্লেখ্য, চীনে কয়লা উৎপাদনে শীর্ষ স্থানে রয়েছে যেসব এলাকা এটি তার অন্যতম। রাষ্ট্র পরিচালিত গ্লোবাল টাইমস মঙ্গলবার লিখেছে, এই বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কমপক্ষে ১৭ লাখ ৫০ হাজার মানুষ। এক লাখ ২০ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। ধসে পড়েছে ১৯৫০০ বাড়িঘর।
তবে প্রদেশটির কোন অঞ্চল সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তা বলা হয়নি। এই প্রদেশটি বেইজিং থেকে পশ্চিমে এবং এর আয়তন এক লাখ ৫৬ হাজার বর্গ কিলোমিটার। গ্লোবাল টাইমস বলছে, এতে সরাসরি অর্থনৈতিক ক্ষতি হয়েছে কমপক্ষে ৭৭ কোটি ডলার। বার্তা সংস্থা সিনহুয়া বলেছে, জরুরি বন্যা বিষয়ক তৎপরতা কমিয়ে আনা হয়েছে। এ থেকে বোঝা যায়, পরিস্থিতি স্থিতিশীল পর্যায়ে রয়েছে। সতর্ক সংকেতের নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে ছোট ও মাঝারি নদীগুলো। এর আগে জুলাই মাসে হেনান প্রদেশে মারাত্মক বন্যা দেখা দেয়। তাতে কমপক্ষে ৩০০ মানুষ মারা গেছেন। এর পরেই এ ঘটনায় আসন্ন শীতে ওই এলাকায় বিদ্যুত সরবরাহ নিশ্চিত করা নিয়ে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। শানসি প্রদেশের বেশির ভাগ এলাকা ল্যান্ডলকড বা পাহাড়ি ভূমি দ্বারা বেষ্টিত। সেখানে সাধারণত আবহাওয়া শুষ্ক থাকে। গত সপ্তাহে রেকর্ড ভঙ্গ করে বৃষ্টিপাত হয়েছে। এর ফলে কয়লাখনিগুলোকে বন্যা প্রতিরোধী ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেয়া হয়। স্থানীয় সরকারের বিবৃতি অনুযায়ী, বন্যার কারণে এই প্রদেশে কমপক্ষে ৬০টি কয়লা খনির অপারেশন স্থগিত রয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর