× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

আফগানিস্তান থেকে ১০০ নারী ফুটবলার ও তাদের পরিবারকে উদ্ধার করলো ফিফা ও কাতার

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) অক্টোবর ১৬, ২০২১, শনিবার, ৮:১৭ অপরাহ্ন

আফগানিস্তান থেকে প্রায় ১০০ নারী ফুটবলার এবং তাদের পরিবারকে উদ্ধার করেছে কাতার। ফিফার সঙ্গে মিলে এই উদ্ধার কার্যক্রম চালানো হয় বলে জানিয়েছে দোহা। তাদেরকে বৃহস্পতিবার কাবুল থেকে দোহায় এক বিমানে করে নিয়ে আসা হয়। এতে মোট ৩৫৭ যাত্রী ছিল বলে জানিয়েছে কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আল-জাজিরা। এর আগে আরও ৭ বার বিমান পাঠিয়ে আফগানদের উদ্ধার করেছিল কাতার। তবে এবারই একসঙ্গে এতবেশি মানুষকে দোহায় উড়িয়ে আনা হয়েছে। গত আগস্টে তালেবানের হাতে আফগানিস্তানের পতন হলে এই উদ্ধার কার্যক্রম চালু করে কাতার। যেসব নারী ফুটবলার ও তাদের পরিবারের সদস্যদের কাতারে আনা হয়েছে তারা আপাতত রাজধানী দোহাতেই থাকবেন।
সেখানে শহরের পশ্চিমাংশে একটি কম্পাউন্ডে আফগানদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে। ফিফা জানিয়েছে, এই উদ্ধার কার্যক্রমে তারাও বড় ভূমিকা রেখেছে। এর জন্য তাদেরকে অনেক দরকষাকষি করতে হয়েছে। আবার কাতারের সাহায্যের কথাও স্বীকার করেছে ফিফা। সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তালেবানের অধীনে সব থেকে বেশি ঝুঁঁকিতে ছিল আফগানিস্তানের নারী ফুটবলাররা। বর্তমানে দেশটির অনেক নারী ফুটবলারই জীবন বাঁচাতে লুকিয়ে আছেন। জুনিয়র প্লেয়ার্সদের একটি দল কোনোভাবে পালিয়ে পাকিস্তানে পৌঁছাতে পেরেছিল। তাদেরকে পরে বৃটেনের ভিসা দেয়া হয়েছে। তালেবান ঘোষণা দিয়েছে, নারীরা কোনো ধরনের খেলায় অংশ নিতে পারবে না।
ফিফা জানিয়েছে, আগস্ট মাস থেকে কাতারের সঙ্গে কাজ করছে তারা। সামনেও ফুটবলার ও তাদের পরিবারের সদস্যদের বাঁচাতে কাজ করে যাবে ফিফা। সাহায্য করার জন্য কাতার সরকারকে বিশেষ ধন্যবাদ দিয়েছেন ফিফার কর্মকর্তারা। কাতারের পক্ষ থেকেও আশ্বাস দেয়া হয়েছে, উদ্ধার করা ফুটবলারদের ভবিষ্যৎ নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত তাদেরকে আশ্রয় দেবে কাতার। একইসঙ্গে আফগানিস্তানে যাতে নারীদের অধিকার প্রতিষ্ঠা হয় সে জন্য আন্তর্জাতিক মিত্রদের সঙ্গে কাজ করার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছে দেশটি।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর