× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ নভেম্বর ২০২১, সোমবার , ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পণ্যের দাম বাড়ায় দেশে এর প্রভাব পড়েছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) অক্টোবর ১৭, ২০২১, রবিবার, ৪:৫২ অপরাহ্ন

দেশে নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির জন্য আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পণ্যের মূল্য বৃদ্ধিকে দায়ী করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে আমরা প্রতিনিয়ত মিটিং করে যাচ্ছি। যেসব পণ্যের দাম বেড়েছে বলা হচ্ছে, যেমন- তেল, চিনিসহ প্রত্যেকটা পণ্যের দাম আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বেড়েছে। তাই আমাদের দেশে এর প্রভাব পড়েছে। দাম নিয়ন্ত্রণ রাখতে গরিব কিংবা স্বল্প আয়ের মানুষের জন্য টিসিবির মাধ্যমে কম দামে পণ্য বিক্রির চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।
আজ রোববার মতিঝিলের ঢাকা চেম্বার অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট সামিট ২০২১ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।
এ সময় পিয়াজের দাম বৃদ্ধি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, পিয়াজ আমাদের ২০ শতাংশ ঘাটতি রয়েছে। যার ৯০ শতাংশ আমরা ভারত থেকে আমদানি করে পূরণ করি।
ভারত যখন দাম বাড়িয়ে দেয়, তখনই আমাদের দেশে তার প্রভাব পড়ে। মিসরসহ অন্যান্য দেশ থেকে পিয়াজ আমদানি করাটা অনেক সময়ের ব্যাপার, অনেক সময় আমদানিকালে পথিমধ্যে পচে যায়। এ বিষয়টি সবাইকে বুঝতে হবে।
টিপু মুনশি বলেন, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে ৯৭ শতাংশ মানুষ বিদ্যুৎ সুবিধাভোগ করছে। ১১ কোটি মানুষ ইন্টারনেট সুবিধা ভোগ করছে। টেলিফোন সুবিধা তো আরও বেশি। ২০২৬ সালে মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে জাতিসংঘের স্বীকৃতি মিলবে। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আমাদের অনেক সুবিধা কমে যাবে, সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
শহীদুল আলম
১৭ অক্টোবর ২০২১, রবিবার, ৮:২২

আন্তর্জাতিক বাজারে কর্মসংস্থানের সুযোগ আছে। আপনারা কর্মসংস্থানের কী সুযোগ সৃষ্টি করেছেন দেশে বিদেশে? ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে মানুষ থেকে কী পরিমাণ অর্থ আদায় করছেন আর আয়ের কী ব্যবস্থা করেছেন তা বলুন।

salim khan
১৭ অক্টোবর ২০২১, রবিবার, ৬:৫৬

এটা মিথ্যা কথা। আন্তর্জাতিকভাবে দাম বাড়ে নাই। জনগণের টাকা হরিলুট করা হচ্ছে। এর জবাব একটিন দিতে হবে।

Razzak (From, KSA)
১৭ অক্টোবর ২০২১, রবিবার, ৫:২৩

BAHIRAY KOTHAI SAMANER DAM BARSAY? JEY KONO SORKAR ASHUK SHUDHU EKTAI OWJUR BAHIRAY JINISHER DAM VARA. GAS SAUDI ARABIA 1 BOTTLE 20 RIYAL = 450 TAKA, SHEKHANAY BANGLADESHAY GAS 1 BOTTLE 1150 TAKA, BAKI TAKA KAY KHAI?.

অন্যান্য খবর