× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

জাফলংয়ে উত্তেজনা পুলিশ মোতায়েন

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে
১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার

বহিরাগত পাথরখেকো চক্রের সশস্ত্র মহড়ার কারণে জাফলংয়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। গতকাল রোববার দুপুরে ফয়জুল বিরোধী আলীম উদ্দিন অংশের লোকজন মানববন্ধন করতে চাইলে সেখানে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। পরে গোয়াইনঘাটের পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে ফয়জুল মুক্ত জাফলংয়ের দাবিতে গতকাল রাধানগর অংশে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে এলাকাবাসী। এ সময় তারা ঘোষণা দিয়েছে- ফয়জুল মুক্ত জাফলং না হলে কঠোর আন্দোলন চালানো হবে। গত কয়েকদিন ধরে সিলেটের জাফলংয়ে বালু ও পাথর লুটের ঘটনায় উত্তেজনা চলছে। পরিবেশ ধ্বংস করে বালু ও পাথর লুট করায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করে পিয়াইন নদীতে বালু লুটপাট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এরপর থেকে বালু ও পাথর লুটে অভিযুক্ত ফয়জুল ও তার সহযোগীরা এলাকায় আধিপত্য বিস্তার করে মহড়া দিচ্ছে।
তারা জোরপূর্বক দফায় দফায় বালু ও পাথর লুটের চেষ্টা চালায়। এদিকে- কারাগারে থাকা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান আলীম উদ্দিনের মুক্তির দাবি ও বহিরাগত ফয়জুল মুক্ত জাফলংয়ের দাবিতে গতকাল দুপুরে মানববন্ধন ও সমাবেশের আয়োজন করে এলাকাবাসী। আলীম উদ্দিন অংশের লোকজন জানিয়েছেন, মানববন্ধনের আগেই জাফলং বাজার এলাকায় সশস্ত্র মহড়া শুরু করে ফয়জুল ও তার পক্ষের লোকজন।

এক পর্যায়ে স্থানীয়রা রাধানগর এলাকায় মানববন্ধনের আয়োজন করলে সেখানে গিয়ে তারা হামলা চালায়। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষকালে কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনার পর আলীম উদ্দিন অংশের লোকজন রাধানগর ও নয়াবস্তি এলাকায় ও ফয়জুলের লোকজন মেলার মাঠ এলাকায় অবস্থান নেয়। ফয়জুল অংশের লোকজন দাবি করেছেন- সংঘর্ষের সময় তাদের কয়েকজন লোক আহত হয়েছেন। আলীম উদ্দিন অংশের লোকজনেরও দাবি তাদের কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে- পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার পর ফয়জুল, সুমনের নেতৃত্বে স্থানীয় সাহেনা বেগমের বাড়িঘরে হামলা ও লুটপাট চালানো হয়। এ সময় তারা সাহেনা বেগমকে বেধড়ক মারধর করে। তাদের হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন সাহেনা বেগম। এদিকে গোয়াইনঘাট থানার ওসি পরিমল দেব সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, জাফলংয়ে উত্তেজনার খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হলে কেউ আহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

ফয়জুলমুক্ত জাফলং দাবি: এলাকার মুক্তিযোদ্ধা সন্তান আলীম উদ্দিনের মুক্তির দাবিতে জাফলংয়ে আয়োজিত মানববন্ধন শেষে সমাবেশে এলাকার লোকজন জানিয়েছেন, বহিরাগত সন্ত্রাসী ও কুখ্যাত পাথরখেকো ফয়জুল মুক্ত জাফলং না হলে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। ফয়জুলের কারণেই জাফলংয়ে আজ ঘরে ঘরে অশান্তি। সে বহিরাগত হয়েও জাফলংয়ের বালু ও পাথর লুট করে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছে। এখন জাফলংয়ে অবস্থান গড়তে সে বাইরের সন্ত্রাসী নিয়ে মহড়া দিচ্ছে। তার কারণেই শান্ত জাফলং অশান্ত হয়ে উঠেছে। গতকাল রোববার দুপুরে জাফলংয়ের রাধানগর অংশে আয়োজিত মানববন্ধন শেষে সমাবেশে বক্তারা এ কথা বলেন। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন- ইমরান হোসেন সুমন ওরফে জামাই সুমন ও ফয়জুল গত ৪ মাসে জাফলংয়ে পরিবেশ সংকটাপন্ন এলাকা বা ইসিএ জোন থেকে প্রায় ২০ কোটি টাকা পাথর লুট করেছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে বালু লুটপাটে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করায় এখন তারা এলাকায় লাঠিসোটা নিয়ে মহড়া দিচ্ছে। তাদের মহড়ার কারণে জাফলংয়ে ভীতিকর পরিবেশ বিরাজ করছে। এজন্য গোয়াইনঘাটের ওসি পরিমল দেব সহ সংশ্লিষ্টদের কার্যকর ভূমিকা গ্রহণের আহ্বান জানানো হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধা ইনসান আলীর সভাপতিত্বে মানববন্ধন শেষে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- নয়াবস্তি গ্রামের আব্দুল মান্নান, শাহীন আহমদ, কামরুল ইসলাম, সেলিম আহমদ, খলিল আহমদ, ইউনূস আহমদ, কালাম আহমদ, সুমন আহমদ প্রমুখ।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর