× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ নভেম্বর ২০২১, সোমবার , ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

রংপুরে ২০ বাড়ি পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক
(১ মাস আগে) অক্টোবর ১৮, ২০২১, সোমবার, ১০:১৬ পূর্বাহ্ন

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় রামনাথপুর ইউনিয়নের মাঝিপাড়ার প্রায় ২০টি বাড়ি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। ফেসবুকে ধর্মকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগ তুলে গত রাত ১০টার দিকে এসব বাড়িতে আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কয়েকটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

রংপুর জেলা সহকারী পুলিশ সুপার মো. কামরুজ্জামান জানান, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের এক যুবক ফেসবুকে ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর পোস্ট দিয়েছেন- এমন গুজবে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। উত্তেজিত কিছু লোক প্রায় ২০টি বাড়িঘরে আগুন দিয়েছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে।
ফায়ার সার্ভিসের কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, রাত ৯টা ৫০ মিনিটে আগুনের খবর পায় তারা। এরপর পীরগঞ্জ থেকে দুটি, মিঠাপুকুর থেকে দুটি ও রংপুর থেকে একটি ইউনিট সেখানে আগুন নেভাতে যায়। দীর্ঘ কয়েক ঘণ্টার চেষ্টায় তারা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Sakhawat
১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার, ১২:২৯

যারা অন্যের ঘরে আগুন দিতে পারে তারা মানুষ হতে পারে না । আর অমানুষের কোন ধর্ম নেই । হয় তারা কোন একটা ধর্মের খোলসে থেকে ঐ ধর্মকেই ক্ষতিগ্রস্থ করে, নয়তো ওরা ধর্মান্ধ, ধর্মের সঠিক শিক্ষা তারা পায় নি। মুসলিম, হিন্দু বা বৌদ্ধ প্রত্যেক ধর্মীয় বক্তাই অন্য ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল বক্তব্য দিতে শুনি । তবে কেন এই উগ্রবাদ? আমাদের দেশের বেশীরভাগ মানুষ পরধর্মসহিষ্ণু, কোন বিবাদ ছাড়াই আমরা যুগযুগ ধরে মিলেমিশে বাস করছি। আমার মনে হয় এটা বিদেশি কোন এজেন্টের অপততপরতা, তারা স্বার্থান্ধ হয়ে আমাদের স্থিতিশীল দেশকে অস্থিতিশীল করতে চাচ্ছে ধর্মান্ধ লোকদের ব্যবহার করে। সরকারকে আরো কঠোর হতে হবে ।

Anwarul Azam
১৭ অক্টোবর ২০২১, রবিবার, ১১:২৭

বাংলাদেশে রায়ট জাতীয় ঘটনার মাত্রা খুবই কম। এদেশের মানুষ এমনিতেই সহজ সরল। তবে ইদানিং মোবাইলের ব্যবহার মাত্রা ছাড়িয়ে গেছে। এগুলো নিয়ন্ত্রণ করা খুবই জরুরী। কারণ খুব সহজেই একজন ডিভাইসটি ব্যবহার করে মন্দ কাজ বেশী করছে বলেই মনে হয়।

MD. HASAN SHAHID FER
১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার, ১১:৫১

গুজবে কান দিয়ে যারা ধর্মের নামে অধর্ম করে অথবা সমাজে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে তারা ধার্মিক নয় অভিশপ্ত পাপী।

মাসুদ
১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার, ১০:৫৫

গুজবে কান দিয়ে অন্য ধর্মের উপর হামলাকারীরা অবশ্যই মুসলমান হতে পারে না, মুসলমানের হাতে অন্য ধর্মের লোকদের জান, মাল, ইজ্জতের অবশ্যই নিশ্চয়তা থাকতে হবে। হামলাকারী সন্ত্রাসীদের কঠোর হাতে দমন করতে হবে।

Md. Harun al-Rashid
১৮ অক্টোবর ২০২১, সোমবার, ১০:৩১

এদের কে থামাবে?এমন অমানবিকতার অবসান চাই। নিগৃহিতের অভিশাপ ও আহাজারির আগুনে ওরাও পুড়ুক।

অন্যান্য খবর