× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

কালিয়াকৈরে বনের জমিতে অর্ধশতাধিক জুটের গোডাউন

বাংলারজমিন

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি
২৫ অক্টোবর ২০২১, সোমবার

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বন বিভাগ কাঁচিঘাটা ও কালিয়াকৈর রেঞ্জে বিভক্ত। জমির দাম বেশি ও শিল্প এলাকা হওয়ায় ভূমিদস্যুদের নজর কালিয়াকৈর রেঞ্জ এলাকায় বেশি। ওই রেঞ্জের আওতাধীন চন্দ্রা ও মৌচাক বিট এলাকায় বনের জমি দখল করে গড়ে উঠেছে প্রায় অর্ধশতাধিক জুটের গোডাউন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা গেছে, কালিয়াকৈর রেঞ্জের আধা কিলোমিটারের মধ্যে প্রায় পনেরটি জুটের গোডাউন রয়েছে। যেগুলো প্রতিটিই কমবেশি বনের জমি দখল করে আছে। এছাড়াও কালামপুর, মৌচাক, সফিপুর, পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় রয়েছে একাধিক করে গোডাউন। ক্ষমতাসীন দলের নাম ভাঙিয়ে একদল জুট ব্যবসায়ী ও একটি চক্র বন বিভাগের সঙ্গে আঁতাত করে এসব গোডাউন নির্মাণ করেছে। এসব জুট ব্যবসায়ীরা বনের জমি দখল করেই ক্ষ্যান্ত নয়। জুটের মালামাল ফেলে ও পানি জমিয়ে মেরে ফেলেছে মহামূল্যবান শাল বাগান। স্থানীয় লোকজন আরও জানায়, জুট ব্যবসায়ীদের সঙ্গে গোপন সক্ষতা রয়েছে বন কর্মকর্তাদের। মাসিক চাঁদার বিনিময়ে এসব জুটের গোডাউন করতে দিচ্ছে বন বিভাগের লোকজন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক জুট ব্যবসায়ী জানায়, মাসিক চাদা দিতে হয় এটা পুরোপুরি ঠিক না। তবে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তাদেরকে সম্মানী দিতে হয়। কালিয়াকৈর রেঞ্জ কর্মকর্তা আশরাফুল আলম দোলন বলেন, শুধুমাত্র জুটের গোডাউনের দখল নয়, যত প্রকারের দখল রয়েছে সবই একে একে উচ্ছেদ করা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর