× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

চৌমুহনীতে পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় ৩ জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী থেকে
২৫ অক্টোবর ২০২১, সোমবার

নোয়াখালীর চৌমুহনী বাজারের পূজামণ্ডপ, মন্দির, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও বাড়িতে হামলা, ভাঙচুরের ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্ত ৮ জনের মধ্যে ৩ জন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। গত শনিবার বিকালে আদালতে ১৬৪ ধারায় এ জবানবন্দি দেয় তারা। গতকাল দুপুরে পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম এ তথ্য মানবজমিনকে নিশ্চিত করেছেন। এ নিয়ে ৪ জন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। জবানবন্দি প্রদানকৃতরা হলো- রিপন আহাম্মেদ মাহীর (১৯), আরাফাত হোসেন আবির (১৮) ও ইব্রাহিম খলিল ওরফে রাজিব (২৪)। এর আগে, বৃহস্পতিবার চৌমুহনী পৌরসভার করিমপুর গ্রামের আবদুল হাশিমের ছেলে আবদুর রহিম সুজন (১৯) স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছিল। ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্ত, গ্রেপ্তারকৃত ৮ জন ও সন্দেহভাজন ৫ জনসহ ১৩ জনকে আটক করা হয়। ফুটেজ দেখে শনাক্তকৃত আটক ৮ আসামি হলো- সুবর্ণচর উপজেলার চর জব্বর ইউনিয়নের চর বহুলা গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে ফরহাদ (২৬), চৌমুহনী পৌরসভার গণিপুর গ্রামের মৃত সাহাব উদ্দিনের ছেলে মো. শামীম (২৭), একই গ্রামের জয়নাল আবেদিনের ছেলে রিপন আহাম্মেদ মাহীর (১৮), বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানি ইউনিয়নের নারায়ণপুর গ্রামের দেলোয়ারের ছেলে জহিরুল ইসলাম জুয়েল (১৯), হাজীপুর ইউনিয়নের নুরুল হক ভূঁইয়ার ছেলে ইব্রাহিম খলিল ওরফে রাজিব (২৪), ছয়ানি ইউনিয়নের ছোট শরীফপুর গ্রামের কামরুল হাসানের ছেলে আরাফাত হোসেন আবির (১৮), চৌমুহনী পৌরসভার মধ্যম নাজিরপুর গ্রামের মৃত বাবুল হেসেনের ছেলে দুলাল হোসেন (৪০) ও সদর উপজেলার আন্ডারচর ইউনিয়নের পশ্চিম মাইজচরা গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে কামাল হোসেন (৪৫) এবং পূজা ম-পে হামলাকারী সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে বেগমগঞ্জ উপজেলার নরোত্তমপুর ইউনিয়নের নরোত্তমপুর গ্রামের আবদুস সাত্তারের ছেলে শহীদ (৪৫), চৌমুহনী পৌরসভার গণিপুর গ্রামের এতিম আলীর ছেলে হুমায়ুন (৬৩) (ইসকন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক শনাক্তকৃত), একই গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে মো. কাশেম বিন আবু জুবায়েরের অরিন (২৫), মো. মোস্তফার ছেলে ইমাম হোসেন রাজু (২৮) ও বাবলু মিয়ার ছেলে মো. আলাউদ্দিন (৩৫)। এসপি মো. শহীদুল ইসলাম আরও জানান, গ্রেপ্তারকৃত আসামিদেরকে বিভিন্ন মামলায় বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর