× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার , ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

শাহরাস্তি পৌর কাউন্সিলরের লুটপাটের মামলা

বাংলারজমিন

শাহরাস্তি (চাঁদপুর) প্রতিনিধি
২৫ অক্টোবর ২০২১, সোমবার

চাঁদপুরের শাহরাস্তি পৌরসভার ১২ ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. শাহনেওয়াজেরড় বিরুদ্ধে চাঁদা আদায়, হামলা ও লুটপাটের অভিযোগে ভুক্তভোগী এক ব্যক্তি মামলা দায়ের করেছেন। জানা গেছে, গত ১১ই অক্টোবর পৌরসভার বিশারা গ্রামের মোহাম্মদ ইব্রাহীম (৬০) চাঁদপুরের বিজ্ঞ বিচারক আমলী আদালতে (শাহরাস্তি) এ মামলাটি দায়ের করেন। ওই মামলার ভিত্তিতে আদালত মামলা রেকর্ড করার জন্য শাহরাস্তি থানার ওসিকে নির্দেশ প্রদান করেন। মামলার আর্জিতে উল্লেখ করা হয়, বাদী মোহাম্মদ ইব্রাহীমের সঙ্গে একই গ্রামের মৃত আঃ মতিনের পুত্র আনোয়ার হোসেন শাহীনের সঙ্গে জমি সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার সালিশ বৈঠকে শাহীন ওই ভূমির দখল ছেড়ে দেয়ার অঙ্গীকার করে। শাহরাস্তি পৌরসভার ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. শাহনেওয়াজের প্ররোচনায় শাহীন উক্ত ভূমির দখল হস্তান্তরে বিলম্ব করে। মামলার বাদী বিরোধকৃত ভূমিতে দালান নির্মাণের জন্য সামগ্রী এনে রাখলে গত ৮ই অক্টোবর পৌর কাউন্সিলর ২০-২৫ জন লোক নিয়ে বাদীর বসতঘরের সামনে এসে গালমন্দ করে। নির্মাণকাজ করতে হলে তাকে পরদিন ৫ লাখ টাকা চাঁদা দিতে হবে বলে জানান। চাঁদা না পেয়ে ৯ই অক্টোবর রাত পৌনে ১২টার দিকে কাউন্সিলর শাহনেওয়াজ বাদীর নির্মাণসামগ্রী পিকআপ ভ্যানে উঠিয়ে নিয়ে যায়। এ সময় বাধা দিলে কাউন্সিলরের সঙ্গে থাকা লোকজন মোহাম্মদ ইব্রাহীম ও তার পুত্র আরিফুল ইসলামকে মারধর করে রক্তাক্ত জখম করে। একপর্যায়ে জাহাঙ্গীর আলম (৫২) ইব্রাহীমের ঘরে প্রবেশ করে নগদ ১ লাখ ২০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। সঙ্গে থাকা লোকরা ইব্রাহীমের একটি টিনের ঘর কুপিয়ে নষ্ট করে ফেলে। মামলার বাদী মোহাম্মদ ইব্রাহীম জানান, কাউন্সিলর মো. শাহনেওয়াজের ভয়ে গভীর রাতে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে যেতে পারিনি। পরদিন সকালে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা করি। শাহরাস্তি থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল মান্নান জানান, এ সংক্রান্ত আদালতের আদেশ পেয়েছি। আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। মামলার বিষয়ে পৌর কাউন্সিলর মো. শাহনেওয়াজ মুঠোফোনে জানান, এ মামলা বানোয়াট ও সাজানো। তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর