× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ নভেম্বর ২০২১, সোমবার , ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

কুমিল্লায় ইকবালকে নিয়ে অভিযান, হনুমানের গদা উদ্ধার

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, কুমিল্লা থেকে
(১ মাস আগে) অক্টোবর ২৫, ২০২১, সোমবার, ৯:৫৭ পূর্বাহ্ন

কুমিল্লার নানুয়ার দীঘির পাড়ের পূজামণ্ডপে হনুমানের মূর্তির উপর পবিত্র কোরআন রেখে ইকবাল হোসেনের নিয়ে আসা গদাটি উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে দারোগাবাড়ি মাজার সংলগ্ন রাস্তার দক্ষিণ পাশের একটি ভবনের দেয়াল ঘেঁষা ঝোপ থেকে অভিযান চালিয়ে গদাটি উদ্ধার করে। অভিযানকালে ইকবালকে সঙ্গে নিয়ে আসে পুলিশ। এসময় তার দেখানো জায়গা থেকে গদাটি উদ্ধার করা হয়। এসময় সিআইডির একটি ফরেনসিক টিম গদা থেকে আঙ্গুলের ছাপ ও এর আশপাশে পাওয়া অন্যান্য বস্তু উদ্ধার করে আলামত হিসেবে জব্দ করে।

গত ১৩ই অক্টোবর শারদীয় দুর্গাপূজা চলাকালে নানুয়া দীঘির পাড়ের মণ্ডপে হনুমানের মূর্তির পর পবিত্র কোরআন শরীফ রেখে মূর্তির গদাটি নিয়ে যায় ইকবাল হোসেন। গদাটি হাতে নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় ঘোরাঘুরির পর গদাটি ফেলে দেয় ইকবাল। পূজামণ্ডপে কোরআন রাখা ও গদা নিয়ে ঘোরাঘুরির চিত্র ধরা পড়ে বিভিন্ন সিসি ক্যামেরার ফুটেজে। এসব ঘটনার পর ইকবাল কুমিল্লা ছেড়ে পাড়ি জমায় কক্সবাজারে।
গত ২১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্ট থেকে গ্রেপ্তার হয় ইকবাল। পরে ইকবালসহ এ মামলার চার আসামিকে কুমিল্লার আদালতে হাজির করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। আদালত প্রত্যেক আসামির ৭ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে মামলার অন্যতম আসামি ইকবাল হোসেন জানান, পূজামণ্ডপে হনুমানের কোলে কোরআন রেখে হাত থেকে গদাটি নিয়ে এসে দারোগাবাড়ি মাজার মসজিদের পাশের একটি ঝোপে ফেলে দেন। রাতে অভিযানের সময় ইকবালকে মাজারের পাশে নিয়ে যাওয়া হলে তার দেখানো জায়গা থেকে হনুমানের গদাটি উদ্ধার করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম. তানভীর আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহান সরকার, কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ারুল আজিমসহ জেলা পুলিশ, সিআইডি ও গোয়েন্দা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
ক্ষুদিরাম
২৫ অক্টোবর ২০২১, সোমবার, ১২:১৩

আহা কি আনন্দ আকাশে বাতাসে !! নায়ক আসে, খলনায়ক আসে, নাটক জমে প্রেক্ষাগৃহে !! আহা কি আনন্দ আকাশে বাতাসে !! ক্ষমতায় আছে যারা, চিরজীবী নয় তারা। দিনের শেষে দিন ঠিকই আসে। এই দিনকে পিছে ফেলে সেদিন আসবে হেসে। এদের তখন কি হবে ?? আহা কি আনন্দ আকাশে বাতাসে !!

অন্যান্য খবর