× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

পাকিস্তানের কাছে ভারতের হার, পাঞ্জাবে কাশ্মীরি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা (ভিডিও)

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) অক্টোবর ২৫, ২০২১, সোমবার, ৩:৪৮ অপরাহ্ন

টি-২০ বিশ্বকাপ সুপার ১২-এর ম্যাচে পাকিস্তানের কাছে ভারত পরাজিত হওয়ার পর পাঞ্জাবে একটি কলেজে কাশ্মীরি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। এ সময় হামলাকারীরা ওইসব শিক্ষার্থীকে শারীরিক এবং মৌখিক নির্যাতন করে। এক পর্যায়ে তাদের রুমে ভাঙচুর চালায়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি। এতে বলা হয়, খেলা শেষ হওয়ার পর রোববার দিবাগত রাতে পাঞ্জাবের ‘ভাই গুরদাস ইনস্টিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি’তে এ ঘটনা ঘটে। সেখানে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়–য়া কয়েকজন কাশ্মীরি শিক্ষার্থী নির্যাতিত হন বলে তারা অভিযোগ করেছেন। পাঞ্জাবের পুলিশ বলেছে, ঘটনার পরপরই তারা কলেজ ক্যাম্পাসে উপস্থিত হয় এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

ভাঙচুর করা কক্ষ দেখিয়ে কাশ্মীরি এক শিক্ষার্থী বলেছেন, আমরা খেলা দেখছিলাম।
কিন্তু আমাদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। আমরা তো এই প্রতিষ্ঠানে এসেছি পড়াশোনা করতে। আমরাও তো ভারতীয়। আপনারা দেখতে পারছেন, এখানে কি করা হয়েছে আমাদের সঙ্গে। আমরা কি ভারতীয় নই? তাহলে প্রধানমন্ত্রী মোদি কি বলবেন? প্রশ্ন রাখেন ওই শিক্ষার্থী। বিষয়টি দেখতে এবং কাশ্মীরি শিক্ষার্থীদের নিশ্চয়তা দিতে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিংয়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহ। তিনি টুইটারে লিখেছেন, রোববার রাতে পাঞ্জাবে একটি কলেজে কাশ্মীরি কিছু শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে শারীরিক ও মৌখিক নির্যাতন হয়েছে। এ খবর হতাশাজনক। পাঞ্জাবে পড়তে যাওয়া এসব শিক্ষার্থীর বিষয়ে নিশ্চিত করতে এবং বিষয়টি পুলিশকে দেখতে নির্দেশনা দিতে চরণজিৎ জি’র কাছে অনুরোধ করছি।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি। আজ সোমবার সকালে পুলিশ এবং কলেজ কর্তৃপক্ষের সামনে একপক্ষ অন্যপক্ষের কাছে ক্ষমা চেয়েছে। এর আগে শিক্ষার্থীরা যে ভিডিও শেয়ার করেছে, তাতে ভাঙা চেয়ার দেখা যায়। হোস্টেল কক্ষের বিছানা ওলট-পালট করা। তাদের শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ভিডিওটি ঘুরছে। প্রকাশ হয়েছে কিছু ছবি। তাতে দেখা যায় একটি দলের হাতে স্ট্যাম্প। পাকিস্তানের কাছে ভারতের পরাজিত হওয়ার পর ভাঙচুর চালাচ্ছে তারা।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর