× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার , ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিঃ

প্রাণ ফিরেছে শাবি ক্যাম্পাসে

বাংলারজমিন

শাবি প্রতিনিধি
২৬ অক্টোবর ২০২১, মঙ্গলবার

ব্যাগ, লাগেজ ও প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র নিয়ে দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর হলে ফিরতে শুরু করেছে সিলেটের শাহ্‌জালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। গতকাল সকাল ১০টায় শিক্ষার্থীদের জন্য হলে প্রবেশ উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। এ সময় শিক্ষার্থীদেরকে ফুল, কলম, মাস্ক, স্যানিটাইজার, চাবির রিং, ব্যাগ ইত্যাদি দিয়ে বরণ করে নিয়েছেন হল কর্তৃপক্ষ।
এদিকে সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল হল প্রভোস্টকে নিয়ে অনলাইন প্ল্যাটফর্ম জুমে শিক্ষার্থীদের হলে প্রত্যাবর্তন শীর্ষক এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক অধ্যাপক জহির উদ্দিন আহমেদ, প্রক্টর ড. আলমগীর কবীরসহ বিভিন্ন হলের প্রভোস্টবৃন্দ, সহকারী প্রভোস্টবৃন্দসহ বিভিন্ন প্রশাসনিক ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।  
এ সময় ভিসি বলেন, দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর আমাদের আবাসিক হল খুলে দেয়া হয়েছে। এতে শিক্ষার্থীদের পদচারণায় ক্যাম্পাসে আবার প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে আসবে। শিক্ষার্থীদের এক ডোজ টিকা নিশ্চিতের ব্যবস্থা করেছি আশা করি সকলে টিকা নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে হলে ও ক্যাম্পাসে চলাফেরা করবে।

দীর্ঘ বন্ধের পর অবশেষে ক্যাম্পাসে ফিরতে পারায় স্বস্তি ফিরেছে শিক্ষার্থীদের মাঝে। হলপ্রভোস্ট থেকে শুরু করে শিক্ষকদের মাঝেও কাজ করছে উচ্ছ্বাস। অনুভূতি ব্যক্ত করে শাহ্‌পরাণ হলের আবাসিক শিক্ষার্থী শাহ্‌ নেওয়াজ  বলেন, অনেকদিন থেকেই সিলেটে আছি। তবে মেসে ছিলাম। অনেকের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ ছিল না। হল খুলে দেওয়াই অনেকে ফিরছে সিলেটে। সবার সঙ্গে দেখা হয়ে ভালো লাগছে। প্রথম ছাত্রী হলের শিক্ষার্থী জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, হল খোলা নিয়ে দীর্ঘ প্রতিক্ষার অবসান হয়েছে। আবারো চিরচেনা ক্যাম্পাসে আর হলে ফিরে এলে অনেক ভালো লাগছে। আবারো ক্লাস হবে, ক্যাম্পাসে সবার সঙ্গে দেখা হবে এই প্রত্যাশা।
উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ১৭ই মার্চ আনুষ্ঠানিকভাবে সারা দেশে একযোগে সরকারি সিদ্ধান্তের আলোকে বন্ধ হয়ে যায় শাবি ক্যাম্পাস ও আবাসিক হলগুলো। দীর্ঘ ১৯ মাস পর আবারো ক্যাম্পাসে ফিরতে পেরে উচ্ছ্বসিত শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। যেন প্রাণ ফিরে পেয়েছে আবারো শাবি ক্যাম্পাস।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর