× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১৯ জানুয়ারি ২০২২, বুধবার , ৫ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

টাকার মালা দিয়ে নবনির্বাচিত মহিলা সদস্যকে বরণ

এক্সক্লুসিভ

তিতাস (কুমিল্লা) প্রতিনিধি
১৫ নভেম্বর ২০২১, সোমবার

দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত কুমিল্লা তিতাস উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় মাসুয়া বেগমকে প্রায় লাখ টাকার মালা দিয়ে বরণ করে নিলেন এলাকাবাসী। মাসুয়া বেগম উপজেলার ৭নং নারান্দিয়া ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত সংরক্ষিত মহিলা সদস্য। তিনি এই নিয়ে দুইবার ইউপি মহিলা সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। গতকাল দুপুরে বিজয় মিছিল নিয়ে ওই ওয়ার্ডের নয়াকান্দি, দুঃখিয়ারকান্দি, সোনাকান্দা, বাটি বন্ধ ও তাইরাকান্দি এলাকায় বের হলে গ্রামবাসী তাকে টাকার মালা ও ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে। মালায় প্রায় ১ লাখ টাকা ছিল। এ সময় বিজয় মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, মো. রুহুল আমিন ডালিম মোল্লা, মনির খান, এসকে জাহাঙ্গীর, মোকলেছুর রহমান ও রুক্কু মিয়াসহ সহস্রাধিক ভোটার ও সমর্থকবৃন্দ। সবার কাছ থেকে অভিনন্দন, ফুলেল শুভেচ্ছা ও টাকার মালা উপহার পেয়ে ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত মহিলা মেম্বার মাসুয়া বেগম বলেন, ‘আল্লাহর দরবারে লাখো কোটি শুকরিয়া জানাই আমাকে দ্বিতীয়বারের মতো জনগণের সেবা করার জন্য মহিলা মেম্বার হিসেবে নির্বাচিত করায়। পাশাপাশি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাই আমার ওয়ার্ডের সকল জনগণকে যারা আমাকে ভালোবেসে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেছে।
তিনি আরও বলেন, আজ বিজয় মিছিল বের করলে এলাকাবাসী আমাকে টাকার মালা উপহার দেন। এমন ভালোবাসা পেয়ে সত্যিই আমি মুগ্ধ যা কোনোদিন ভোলার মতো না।  এই ভালোবাসা যেন সারাজীবন ধরে রাখতে পারি তাই সবার কাছে দোয়া ও সহযোগিতা চাই।
প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার রাতে অনুষ্ঠিত উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এতে ৭নং নারান্দিয়া ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য মাসুয়া বেগম (মাইক প্রতীক) ১৮৩৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী লাভ করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নাজমা (তালগাছ প্রতীক) পেয়েছেন ৭৬৮ ভোট।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর