× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার , ৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

দুর্ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন সাবেক সেনাপ্রধানের ছেলে ইশরাক

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার
২৫ নভেম্বর ২০২১, বৃহস্পতিবার

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত সাবেক সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদের ছেলে ইশরাক আহমেদ সাদিনের সঙ্গে কথা বলে দুর্ঘটনার বর্ণনা নিয়েছে পুলিশ। ঢাকার মহাখালীতে গাড়ি দুর্ঘটনায় আহত হয়ে ইশরাক ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। পুলিশের তদন্ত সংশ্লিষ্টরা হাসপাতালেই তার সঙ্গে কথা বলেছেন। মূলত কাফরুল থানায় করা দু’টি অপমৃত্যুর মামলার বিষয়ে কথা বলেছে পুলিশ।
পুলিশ জানিয়েছে, গাড়িতে মোট ছয়জন ছিলেন। দুর্ঘটনার সময় গাড়িটি চালাচ্ছিলেন আহমেদ রাইয়ান (২০)। চালকের পাশের আসনে ছিলেন আয়মান ওমর (২০)। ঘটনাস্থলেই তারা দু’জনই মারা যান।
দ্বিতীয় সারিতে ছিলেন ইশরাকসহ তিনজন। আর পেছনে তৃতীয় সারিতে বসেছিলেন গাড়িটির মূল চালক মহসিন। গাড়িটি নিহত রাইয়ানের বাবা প্রয়াত ইলিয়াস আহমেদের নামে নিবন্ধন করা। আয়মান ও রাইয়ানের নিহত হওয়ার ঘটনায় তাদের স্বজনরা মঙ্গলবার কাফরুল থানায় পৃথক অপমৃত্যুর মামলা করেন। মামলা দু’টির তদন্ত কর্মকর্তা কাফরুল থানার এসআই আলমগীর জলিল মঙ্গলবার দুর্ঘটনার পর ইশরাকের সঙ্গে কথা বলতে পারেননি। গতকাল তার সঙ্গে কথা বলেছেন।
এদিকে নিহত দু’জনের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় যে মামলা করা হয়েছে সেখানে তারা কারো প্রতি অভিযোগ বা সন্দেহ করেনি। আয়মানের মামা আবু তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়ার করা মামলায় উল্লেখ করেছেন গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তার ভাগ্নে আয়মান ওমর নিহত হন। এই মৃত্যুর বিষয়ে আয়মানের বাবা অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল ওমর ফারুক ও তার মা শাহজাদী নাসিমার কোনো অভিযোগ বা সন্দেহ নেই। রাইয়ানের মামা হারুন খানের মামলাতেও কোনো অভিযোগ বা সন্দেহ  উল্লেখ ছিল না। ময়নাতদন্ত ছাড়াই নিহতদের মরদেহ তার পরিবার নিয়ে গেছে।  
কাফরুল থানার এসআই আলমগীর জলিল বলেন, ঘটনার পরে আমি ইশরাকের সঙ্গে কথা বলতে পারিনি। শুধুমাত্র চালক মহসিনের সঙ্গে কথা হয়েছিল। বুধবার হাসপাতালে ইশরাকের সঙ্গে দেখা করে প্রাথমিক বর্ণনা নিয়েছি।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর