× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার , ৯ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

শিক্ষার্থীদের ভাড়া কমাতে রাজি নয় মালিক সমিতি

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) নভেম্বর ২৫, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৭:৫০ অপরাহ্ন

শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে হাফ ভাড়া নেওয়ার দাবি মানতে নারাজ বেসরকারি পরিবহন মালিকরা। আজ সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে আয়োজিত বৈঠকে পরিবহন মালিকরা জানিয়েছেন, তাদের পক্ষে কম নেওয়া সম্ভব নয়। মন্ত্রণালয় মালিকদের কয়েক দিন সময় নিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে শিক্ষার্থীদের বিষয়ে একটা সিদ্ধান্তে আসার অনুরোধ জানিয়েছে। অন্যদিকে সরকারি পরিবহন সংস্থা বিআরটিসিতে শিক্ষার্থীদের ভ্রমণের সময় ভাড়া ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।  তবে কত ছাড় দেওয়া হবে, তা শুক্রবার জানিয়ে দেবেন সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। দেশের শিক্ষার্থীরা কয়েক দিন ধরেই ভাড়া কমানো বা হাফ পাস নিয়ে আন্দোলন করে আসছেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে বনানীর বিআরটিএ কার্যালয়ে শিক্ষার্থীদের অর্ধেক ভাড়া দাবির বিষয়ে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠক শেষে এ কথা জানান সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব নজরুল ইসলাম। বৈঠকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পুলিশের প্রতিনিধি ছাড়াও বিআরটিসির চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
বৈঠকে বাস মালিকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, যেহেতু সরকার বেসরকারি বাসে ভর্তুকি দেয় না সেহেতু ভাড়া কম নেওয়ার সুযোগ নেই। কারণ যানজটের কারণে ট্রিপের সংখ্যা কমেছে, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, গাড়ির যন্ত্রাংশের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই হাফ ভাড়া নিলে লোকসান গুনতে হবে। এই পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের জন্য গণপরিবহণ ভাড়ায় কত ছাড় হলে ক্ষতি নেই, সাত দিনের মধ্যে নিজেরা আলোচনা করে যৌক্তিক প্রস্তাব দিতে মালিকপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে বিআরটিএ। মালিকপক্ষরাও নিজেরা আলোচনা করে সাত দিনের মধ্যে সরকারের কাছে একটি প্রস্তাব দেবেন বলে জানিয়েছেন। বৈঠক শেষে সচিব মো. নজরুল ইসলাম বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকা মহানগরে শিক্ষার্থীরা বাসে হাফ ভাড়ার দাবিতে আন্দোলন করছেন। তাদের দাবির প্রতি গুরুত্ব দিয়ে সরকার এই সমস্যা সমাধানের জন্য আন্তরিক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সরকার শিক্ষার্থীদের এ দাবির প্রতি বিশেষভাবে গুরুত্ব দিচ্ছে বলেই আমরা বৈঠকে অংশীজনদের নিয়ে বসেছি। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সামাজিক দায়বদ্ধতা (সিএসআর) হিসেবে শিক্ষার্থীদের জন্য ভাড়া কমানোর বিষয়টি বিবেচনায় নিতে। বেসরকারি বাসে অর্ধেক ভাড়ার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত আমরা চাপিয়ে দিতে পারি না। কারণ বাসে কত শতাংশ ভাড়া ছাড় দিতে হবে আমরা সেই সিদ্ধান্ত দেওয়ার পর বাস মালিকরা ধর্মঘট ডাকতে পারেন। তাতে জনদুর্ভোগ বাড়বে। শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে সরে আসার অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে ভাড়ার আনুষ্ঠানিক শিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রস্তাব করবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিকে বলা হয়েছে, তারাও তাদের একটি প্রস্তাব আমাদের কাছে দেবেন। সব পক্ষ দ্রুত প্রস্তাব জমা দেবে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর