× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার , ৮ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

‘কে দাওয়াত দিলো না দিলো তা নিয়ে চিন্তা করা উচিত নয়’

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে
২৭ নভেম্বর ২০২১, শনিবার

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেছেন, কে দাওয়াত দিলো না দিলো এটা নিয়ে চিন্তা করা উচিত নয়। বরং চিন্তা করা উচিত আগামীতে আমাদের দেশে যখন নির্বাচন হয়, তখন একটি লোকও যাতে না মারা যায়। সেটার জন্য আমরা প্রচেষ্টা চালাবো। আমাদের কোথাও যদি ব্যত্যয় হয় তাহলে সেটি আমরা নিশ্চয় উতরে যাওয়ার চেষ্টা করবো। মন্ত্রী গতকাল সকালে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানববন্দরের নির্মাণাধীন কার্গো হাউস পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন। মন্ত্রী আরও বলেন, প্রেসিডেন্ট সম্প্রতি আমাদের পার্লামেন্টে এই কথাটি বলেছেন, আমাদের সহিষ্ণুতা বাড়াতে হবে। প্রধানমন্ত্রী প্রায়ই বলে থাকেন- একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ বাড়াতে হবে। কারণ, আমরা তো সবাই এক দেশেরই লোক।
শ্রদ্ধাবোধ বাড়লে আমাদের সহিষ্ণুতা বাড়বে। আগামীতে এ দেশের গণতন্ত্রের পরিপক্কতা অর্জনে আমরাই চেষ্টা করবো, অন্য কেউ চেষ্টা করলে পারবে না। ওরা (আমেরিকা) একেক দেশকে প্রেসারে রাখতে চায়। কখনো গণতন্ত্রের কথা বলে, কখনো গুড গর্ভনেন্সের কথা বলে, কখনো টেরোরিজমের কথা বলে, কখনো করাপশনের কথা বলে। সবই তো রাজনৈতিক। এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুক উদ্দিন আহমদ, সিলেটের জেলা প্রশাসক কাজী এমদাদুল ইসলাম, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ প্রমুখ। এদিকে. দুপুরে ইউসেপ হাফিজ মজুমদার সিলেট টেকনিক্যাল স্কুলের ‘ইউসেপ কৃতি শিক্ষার্থী’ সংবর্ধনা-২০২১ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন. আমাদের প্রবাসীরা দেশে ২৫ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন। যা জাতীয় বাজেটের বড় একটা অংশ। কারিগরি শিক্ষা নিয়ে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে বিদেশ গেলে সেটি একদিন ১০০ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হবে বলে বিশ্বাস করি। যুক্তরাজ্যে বেকারত্বের হার খুবই কম। কারণ ওখানকার লোকজন উদ্যোক্তা হিসেবে মানুষকে চাকরি দেয়, চাকরির পেছনে ছোটে না জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা শুধু সাধারণ বিভাগে পড়াশোনা করো চাই না, কারিগরি শিক্ষা নিয়ে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে ওঠো এটা চাই। ডিগ্রি অর্জন করে শুধু চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হতে হবে। চাকরির পেছনে না ছুটে চাকরি দিতে হবে। ইউসেপ বাংলাদেশের চেয়ারপার্সন পারভীন মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইউসেপ বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক মুখ্য সচিব মো. আবদুল করিম। ইউসেপ সিলেট রিজিওনের আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক আনোয়ারুল ইসলাম ও ইউসেপ টেকনিক্যাল স্কুলের শিক্ষক তামান্না মাহমুদের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ১৭ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও এরিয়া কমান্ডার সিলেট এরিয়া মেজর জেনারেল হামিদুল হক, জালালাবাদ সেনানিবাসের স্কুল অব ইনফ্যান্ট্রি অ্যান্ড ট্যাকটিসের কমাডেন্ট মেজর জেনারেল চৌধুরী মোহাম্মদ আজিজুল হক হাজারী, ইউসেপ বাংলাদেশের সাবেক চেয়ারম্যান ড. ওবায়দুর রব, সিলেটের জেলা প্রশাসক কাজী এম এমদাদুল ইসলাম, সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার পরিতোষ ঘোষ, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ, জকিগঞ্জের উপজেলা চেয়ারম্যান লোকমান আহমদ, সিলেট উইমেন্স চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি স্বর্ণলতা রায়, মহানগর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ প্রমুখ।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর