× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৫ জানুয়ারি ২০২২, মঙ্গলবার , ১১ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

চট্টগ্রাম টেস্ট / বাংলাদেশের ব্যাটিং বিপর্যয়

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৮ নভেম্বর ২০২১, রবিবার

৪৪ রানের লিড নিয়ে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ব্যাটিং  বিপর্যয়ে পড়েছে বাংলাদেশ। ১৪ রানেই হারিয়ে বসেছে দুই উইকেট। মাত্র ১ রান করে শাহিন আফ্রিদির প্রথম শিকার হয়েছেন সাদমান ইসলাম। শূন্য রানে ফিরেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। শাহিন আফ্রিদির বলে তিনি ক্যাচ দিয়েছেন স্লিপে। দলীয় ১৫ রানে রানের খাতা না খুলেই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেছেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। তিনি বিদায় নেন হাসান আলীর বলে। ১৫ রানে তিন উইকেট হারিয়ে ভয়াবহ ব্যাটিং বিপর্যয়ে পরে বাংলাদেশ।

তাইজুলের স্পিন ঘুর্ণিতে দিশেহারা পাকিস্তান।
৭ পাকিস্তান ব্যাটারকে সাজঘরের পথ ধরিয়েছেন এই বাঁহাতি স্পিনার। মূলত এই স্পিনারের ঘূর্ণিতে ২৮৬ রানে অলআউট হয়েছে পাকিস্তান। বাংলাদেশ লিড পেয়েছে ৪৪ রানের।
ফাহিম আশরাফকে আউট করে নিজের সপ্তম শিকার বানান তাইজুল।  ৪৪.৪ ওভার বল করে ১১৬ রান দিয়ে ৭ উইকেট নিয়েছেন এই স্পিনার।  প্রথম ইনিংসে পাকিস্তানের সংগ্রহ ২৮৬। বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে করে ৩৩০ রান।

অবশেষে ফিরলেন আবিদ
সকাল থেকে একের পর এক উইকেট হারায় পাকিস্তান। তবে একপ্রান্তে অবিচল ছিলেন আবিদ আলি। সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে এগোচ্ছিলেন দেড়শ’র পথে। পাকিস্তান ওপেনারকে সেদিকে ছুটতে দেননি তাইজুল ইসলাম। এলবিডব্লিউ করে আবিদকে সাজঘরে ফেরান তাইজুল। ২৮২ বলে ১৩৩ রান করেন আবিদ।

এবাদতের শিকার রিজওয়ান
তৃতীয় দিনের শুরুর ছন্দ ধরে রেখে লাঞ্চ বিরতির পর মোহাম্মদ রিজওয়ানের উইকেট তুলে নেয়ার আনন্দে ভাসে বাংলাদেশ। এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলে রিজওয়ানকে (৫ রান) ফেরান পেসার এবাদত হোসেন।

বাংলাদেশের দুর্দান্ত প্রথম সেশন
তাইজুল ইসলামের জোড়া শিকারে তৃতীয় দিন শুরু করে বাংলাদেশ। এরপর মেহেদি হাসান মিরাজ ফেরান বাবর আজমকে। পরে আরো একটি উইকেট তুলে নেন তাইজুল। তৃতীয় দিনের প্রথম সেশনে ৩১ ওভারে ৪ উইকেটে ৫৮ রান তোলে পাকিস্তান। মধ্যাহ্ন বিরতি পর্যন্ত পাকিস্তানের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২০৩ রান। আবিদ আলি ১২৭ ও মোহাম্মদ রিজওয়ান অপরাজিত থাকেন ৫ রানে। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ করে ৩৩০ রান।

তাইজুলের তৃতীয় শিকার ফাওয়াদ
উইকেটের পেছনে দারুণ রিফ্লেক্সে ফাওয়াদ আলমের ক্যাচ তালুবন্দি করেন লিটন দাস। তবে আম্পায়ার আউট দেননি। নিশ্চিত ছিলেন তাইজুল ইসলাম। আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে নেয়া রিভিউয়ে সফল বাংলাদেশ। মাত্র ৮ রানে ফাওয়াদকে ফেরান তাইজুল। ইনিংসে তাইজুলের তৃতীয় শিকার ফাওয়াদ।

বাবর আজমের স্টাম্প উপড়ালেন মিরাজ
এক বল আগেই দারুণ এক বাউন্ডারি হাঁকান বাবর আজম। দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে পাকিস্তান অধিনায়কের অফ স্টাম্প উপড়ান মেহেদি হাসান মিরাজ। ১০ রানে সাজঘরে ফেরেন বাবর।

আবিদ আলির সেঞ্চুরি
৯৩ থেকে শতরানে পৌঁছাতে আবিদ আলি খেললেন ২৯ বল। পাকিস্তান ওপেনারের ধৈর্যশীল ইনিংসটির পূর্ণতা পায় সেঞ্চুরিতে। টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ সেঞ্চুরির দেখা পান আবিদ।

তাইজুলের জোড়া সাফল্যে দিন শুরু
চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ব্যাটে-বলে বিবর্ণ ছিলো বাংলাদেশ। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের করা ৩৩০ রানের জবাবে বিনা উইকেটে ১৪৫ রানে দ্বিতীয় দিন শেষ করে পাকিস্তান। রোববার তৃতীয় দিনের শুরুটা দারুণভাবে করেছে বাংলাদেশ। তৃতীয় দিনের প্রথম ওভারেই তাইজুল ইসলাম সাজঘরে ফিরিয়েছেন ওপেনার আব্দুল্লাহ শফিক ও তিনে নামা আজহার আলিকে। অভিষেক টেস্টে ফিফটির স্বাদ পান শফিক। পঞ্চম বলে আব্দুল্লাহকে (৫২ রান) এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে ১৪৫ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন তাইজুল। পরের বলে আজহার আলিও এলবিডব্লিউয়ের শিকার। ‘গোল্ডেন ডাক’ মেরে ফিরেছেন এই অভিজ্ঞ ব্যাটার। হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন তাইজুল। হ্যাটট্রিক বল ঠেকিয়ে দেন বাবর আজম।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর