× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার , ১৫ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ভোটকেন্দ্রে ১২০ বছরের আজিরন

বাংলারজমিন

ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি
২৮ নভেম্বর ২০২১, রবিবার

আজিরন। বয়স ১২০ এর কোঠায়। বয়সের ভারে ন্যূব্জ হয়ে পড়েছেন এই বৃদ্ধা। তবুও ভোট দিতে হবে। জীবনের শেষ ভোট বলে কথা। পরবর্তী ভোটের নাগাল নাও পেতে পারেন। এমনটাই মনে করেন আজিরন।
দুই হাতে দুই লাঠিতে ভর করে সকালেই নগরবাড়ী আনোয়ারা হাসেম মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে আসেন তিনি।

আজিরন কালিহাতী উপজেলার নারান্দিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের নগরবাড়ী গ্রামের মৃত সৈয়দ আলী সরকারের স্ত্রী। চার ছেলে আর তিন মেয়ে সন্তানের জননী।
তার সন্তানরাও বয়স্ক হয়ে গেছেন।
তার ছোট ছেলে আব্দুল হাকিমের বয়স ৫২ বছর। তিনি বলেন, আমার মায়ের বয়স ১২০ বছর। জীবনের শেষ ভোট মনে করে তিনি কেন্দ্রে এসেছেন। তার উৎসাহ দেখে আমরাও তাকে কেন্দ্রে এনেছি। ভোট না দিতে পারলে দুঃখ থেকে যেতে পারে।

আজিরন বলেন, বয়স হয়েছে। কতোদিনই আর বাঁচবো। এরপর আর ভোট দেওয়ার সুযোগ পাবো কিনা জানি না। তাই জীবনের শেষ ভোটটি দিতে এসেছি।

কেন্দ্রের পোলিং অফিসার মো. হোসেন আলী বলেন, এই কেন্দ্রে আজ আজিরনই সবচেয়ে বয়স্ক নারী। তিনি সকাল ১০টার দিকে কেন্দ্রে এসে ভোট দিয়েছেন।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর