× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার , ১৫ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

চিরিরবন্দরে ২৪ দিন ধরে পানিবন্দি ৩টি পরিবার

বাংলারজমিন

চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
২৯ নভেম্বর ২০২১, সোমবার

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে প্রতিবেশীর প্রতিহিংসার শিকার হয়ে ৩টি পরিবারের সদস্যরা ২৪ দিন ধরে পানিবন্দি। এছাড়াও ওই ৩টি অসহায় পরিবারের নামে মামলা দিয়ে পুরুষদের ঘর ছাড়া করেছে প্রতিপক্ষরা। এ সুযোগে গাছ কর্তন করে পৈত্রিক জমি দখল করে বাড়ির পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা বন্ধ করে দিয়ে বাড়ির ভেতরে জলবদ্ধতার সৃষ্টি করা হয়েছে। এতে ওই ৩টি পরিবার জলাবদ্ধতায় ২৪ দিন ধরে মানবেতর জীবনযাপন করছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার আব্দুলপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ সুকদেবপুর গ্রামের পালপাড়ায়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট দেয়া অভিযোগে জানা গেছে, স্থানীয় প্রদীপ মহন্ত, কৃষ্ণ মহন্ত ও তাদের পিতা কৃপা মহন্ত অবৈধভাবে সুবাস মহান্তের জমি দখল করার চেষ্টা করে এবং বেশ কয়েকটি মূল্যবান গাছ কর্তন করে। শুধু তাই নয়-তারা বসতবাড়ির পানি নিষ্কাশনের রাস্তাও বন্ধ করে দেয়। ফলে বাড়ির ভেতরে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়ে চরম দুর্ভোগে পড়েছে সুবাস ও তার দুই ছেলের পরিরবার।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী সুবাস চন্দ্র মোহন্ত বলেন, বিষয়টি একাধিকবার স্থানীয় প্রশাসন ও চিরিরবন্দর থানা মারফতে সালিশে বসলেও প্রদীপ মহন্তের কাগজ ঠিক না থাকায় তাদের পক্ষে রায় হয়। কিন্তু প্রদীপ মহন্ত সালিশের রায় উপেক্ষা করে গাছ কাটাসহ পানি নিষ্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে দেয়। এতে করে গত ২৪ দিন ধরে বাড়িতে পানিবন্দি হয়ে নিদারুণ কষ্টে বসবাস করছি। তিনি আরও বলেন, উক্ত সম্পত্তির দলিল, নামজারি ও বাংলাদেশ রেকর্ডে তার নিজ নামে আছে। প্রতিপক্ষ প্রদীপ মোহন্ত এখন পর্যন্ত কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। বর্তমানে আমি ও আমার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।
অপরদিকে, প্রদীপ মহন্তের সঙ্গে কথা বলতে গেলে তার স্ত্রী পুর্ণিমা রানী সাংবাদিকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারসহ অশালীন ভাষায় গালিগালাজ করেন। এ ছাড়াও সংবাদ প্রকাশ করলে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন মামলায় জড়ানোর হুমকি প্রদান করেন।
স্থানীয় প্রতিবেশী ও আওয়ামী লীগ নেতা উত্তম কুমার বর্মণ বলেন, প্রদীপের স্ত্রীর অশালীণ ও উগ্র আচরণের কারণেই থানাসহ কোথাও সমাধান করা সম্ভব হয়নি।
থানার এস আই তাজুল ইসলাম জানান, ওই ব্যাপারে বেশ কয়েকবার থানায় বৈঠক করেও কোনো সমাধান করা যায়নি। প্রদীপ মহন্ত কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। যেহেতু জমিজমার বিষয়, সেহেতু থানা থেকে কোনো সিদ্ধান্ত দেয়া হয়নি। শুধুমাত্র আইনশৃংখলা স্বাভাবিক রাখার জন্য উভয়পক্ষকে জানানো হয়েছে। এ বিষয়ে আব্দুলপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ময়েনউদ্দীন শাহ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি যত দ্রুত সম্ভব উভয়পক্ষের মধ্যে আলোচনা সাপেক্ষে মীমাংসার জন্য চেষ্টা করবো।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আয়েশা সিদ্দীকা বলেন, এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে গিয়ে জলাবদ্ধতার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর