× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, সোমবার , ৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে চট্টগ্রাম নগরীর ১ লাখ ৪২ হাজার ভবন

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে
২৮ নভেম্বর ২০২১, রবিবার

চট্টগ্রাম নগরীর ১ লাখ ৪২ হাজার ভবন ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউএসটিসির ভিসি প্রফেসর ড. ইঞ্জিনিয়ার মো. জাহাঙ্গীর আলম। গতকাল সকাল ১১টায় ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি চিটাগাং (ইউএসটিসি) গবেষণা সেল কর্তৃক বিশ্ববিদ্যালয়ের আইকিউএসি কনফারেন্স হলে আয়োজিত ‘ভূমিকম্প সচেতনতা সৃষ্টি ও করণীয় শীর্ষক’ আলোচনা সভায় তিনি এ তথ্য জানান। ড. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘নগরের ১ লাখ ৮৩ হাজার ভবনের মধ্যে ১ লাখ ৪২ হাজার ভবন ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে রয়েছে। এ ছাড়া নগরের ১ হাজার ৩৩টি স্কুলের মধ্যে ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে আছে ৭৪০টি। অনেক স্কুল টেকসই নয়। এসব স্কুলকে টেকসই করতে খুব শিগগিরই পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। স্কুল-কলেজের টেবিলগুলো টেকসই করতে হবে, যাতে ভূমিকম্পে সেগুলোকে কাজে লাগানো যায়। শিক্ষার্থীরা সেখানে আশ্রয় নিতে পারে।’ তিনি বলেন, ‘অনেক ভবনের নিচতলায় ব্যক্তি মালিকানাধীন স্কুল তৈরি হচ্ছে।
যেগুলো ভূমিকম্পে ক্ষতির সম্মুখীন হবে। এখন আমাদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজটি হলো জনসচেতনতা সৃষ্টি করা। শিক্ষক-অভিভাবকরা সচেতন হলে ভূমিকম্প থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব।’
 তিনি আরও বলেন, ‘চট্টগ্রাম শহরে যেসব ঝুঁকিপূর্ণ ভবন রয়েছে, সেগুলোর শক্তিমত্তা বৃদ্ধিতে সরকার জিরো ইন্টারেস্টে লোন দিতে পারে। তাহলে খুব দ্রুত তারা ভবনগুলো ঝুঁকিমুক্ত করতে পারবে। আমরা ইতিমধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের টেবিলগুলো কেমন হবে, তার একটি বর্ণনা শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে দিয়েছি। কিন্তু এখনো কোনও স্কুলে সেটির প্রতিফলন দেখতে পাইনি।’
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর