× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৬ জানুয়ারি ২০২২, বুধবার , ১২ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

সুইস ভোটাররা গণভোটে কোভিড সার্টিফিকেট আইনকে দৃঢ়ভাবে সমর্থন করেছে

অনলাইন

মানবজমিন ডিজিটাল
(১ মাস আগে) নভেম্বর ২৮, ২০২১, রবিবার, ১১:৫৭ অপরাহ্ন

সুইজারল্যান্ডের ভোটাররা এক গণভোটে দেশটির কোভিড সার্টিফিকেট আইনকে দৃঢ়ভাবে সমর্থন করেছে। ওই বিশেষ কোভিড সনদের মাধ্যমে শুধু সেই ব্যক্তিদেরই জনসমাগম এবং সমাবেশে যোগ দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে; যাদের টিকা দেওয়া হয়েছে, যারা করোনা থেকে সেড়ে উঠেছেন বা যারা টেস্টে নেগেটিভ হয়েছেন।

উত্তেজনাপূর্ণ এক প্রচারণার পর গণভোটে এমনটি লক্ষ্য করা গেল কারণ অনেকেই আইনটির বিরুদ্ধে ছিল। রবিবারের প্রাথমিক ফলাফলে দেখা গেছে প্রায় দুই-তৃতীয়াংশ ভোটার আইনটিকে সমর্থন করেছেন। বাজার গবেষক জিএফএস বার্ন ধারণা করছে, দেশজুড়ে ৬৩ শতাংশ মানুষ এতে সমর্থন করেছেন।

তুর্কী সংবাদ সংস্থা টিআরটি ওয়ার্ল্ড জানায়- বিক্ষোভের আশঙ্কায় পুলিশ বার্নে সরকার ও সংসদের আসন ঘেরাও করে রাখে। সুইজারল্যান্ডের ২৬ টি ক্যান্টনের মধ্যে ১৬ টির ফলাফলে দেখা গেছে ৬১.৯ শতাংশ ভোটার আইনটির পক্ষে ভোট দিয়েছেন। আর ভোট  দিয়েছেন মোট ভোটারের ৬৪ শতাংশ।


আইনটি তথাকথিত কোভিড সনদের আইনি ভিত্তি প্রদান করে, যাতে কোনো ব্যক্তিকে টিকা দেওয়া হয়েছে কিনা বা তিনি রোগ থেকে সেরে উঠেছেন কিনা তা জানা যায়।

বিরোধীরা বলছেন, সেপ্টেম্বর থেকে রেস্তোরাঁ সহ অন্যান্য আবদ্ধ জায়গায় এবং বিভিন্ন স্থানে প্রবেশের জন্য প্রয়োজনীয় ওই সনদের মাধ্যমে একটি "বর্ণবাদ" ব্যবস্থা তৈরি করা হয়েছে।

ইউরোপের অনেক জায়গার মতো সুইজারল্যান্ডেও মহামারীতে লাগাম টানানোর লক্ষ্যে বিভিন্ন বিধিনিষেধের উপর ক্রমবর্ধমান ক্ষোভ লক্ষ্য করা গেছে। কিছু ক্ষেত্রে বিক্ষোভের ফলে পুলিশের সাথে সহিংস সংঘর্ষ হয়। বিক্ষুব্ধ জনতাকে দমন করতে রাবার বুলেট এবং টিয়ারসেলও ব্যবহার করা হয়।

ওই আইনের বিরোধিতাকারী 'ফ্রেন্ডস অফ দ্য কনস্টিটিউশন' গ্রুপের মুখপাত্র মিশেল কেলার বলেন, সরকারকে এই ধরনের ক্ষমতা দেওয়া "গণতন্ত্রের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক। এটা খুব বিব্রতকর যে এই আইনটি অনেক সাংবিধানিক অধিকারকে লঙ্ঘন করে। বিশেষ করে এই কোভিড সনদের সাথে ব্যক্তিগত স্বাধীনতা বিষয়ক ১০ অনুচ্ছেদ সাংঘর্ষিক। এটা ছদ্মবেশে আসলে বাধ্যতামূলক টিকা নেয়াকেই প্রতিষ্ঠা করছে।"

উল্লেখ্য, এই ভোটটি এমন একটি সময়ে নেয়া হচ্ছে যখন সুইজারল্যান্ডে নতুন করে করোনায় সংক্রমিতদের সংখ্যা অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ের তুলনায় সাত গুণ বেশি।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর