× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২২, শনিবার , ৮ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

কোচ-সতীর্থের প্রসংশায় ভাসছেন ভিনিসিউস

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক
২৯ নভেম্বর ২০২১, সোমবার

চলমান মৌসুমটা দারুণ কাটছে ভিনিসিউস জুনিয়রের। তবে রোববার রাতে সেভিয়ার বিপক্ষে শুরু থেকে বিবর্ণ ছিলেন তিনি। তবুও ২১ বছর বয়সী এই ব্রাজিলিয়ানের উপর ভরসা রাখেন রিয়াল মাদ্রিদ কোচ কার্লো আনচেলত্তি। কোচের আস্থার প্রতিদান দিয়ে দারুণ গোলে ৩ পয়েন্ট এনে দেন ভিনিসিউস। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে রাফা মিরের গোলে লিড নেয় সেভিয়া। করিম বেনজেমা সমতা ফেরানোর পর শেষ দিকে গোল করে স্বাগতিক দর্শকদের উল্লাসে ভাসান ভিনিাসিউস।

ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের জয়সূচক গোলটি ছিল দর্শনীয়। ৮৭তম মিনিটে বাম দিকে এডের মিলিতাওয়ের ক্রস বুক দিয়ে নামিয়ে প্রতিপক্ষের দুই খেলোয়াড়ের বাধা এড়িয়ে এগিয়ে যান ভিনিসিউস। এরপর জোরালো শটে ওপরের কোণা দিকে ঠিকানা ব্রাজিলিয়ান তারকা।
দারুণ প্রতিভাবান এই ফরোয়ার্ড নিজেকে চেনাচ্ছেন ভিন্নভাবে। ১৮ বছর বয়সে নাম লেখান রিয়াল মাদ্রিদে। স্পেনে নিজেকে মানিয়ে নিতে দুই বছর লেগেছে ভিনিসিউসের। শুরুর দিকে তেমন উজ্জ্বল ছিলেন না। তবুও এই ব্রাজিলিয়ানের উপর আস্থা রাখে রিয়াল মাদ্রিদ। সেই আস্থার প্রতিদান দিচ্ছেন তিনি। চলমান লা লিগায় ১৩ গোল নিয়ে শীর্ষ গোলদাতা করিম বেনজেমা।

৯ গোল নিয়ে এরপরই রয়েছেন ভিনিসিউস। সব প্রতিযোগিতায় ভিনিসিউসের গোল ১১টি। অ্যাসিস্ট সংখ্যা ৭। চলতি মৌসুমে নিজের সেরা গোলটি করেছেন সেভিয়ার বিপক্ষে। এই ব্রাজিলিয়াসের দর্শনীয় গোলের প্রসংশা রিয়াল কোচ-খেলোয়াড়দের কণ্ঠে। লস ব্লাঙ্কোসদের কোচ কার্লো আনচেলত্তি বলেন, ‘সেরা হওয়ার পথে সে আরেকধাপ এগুলো। ওয়ান-টু-ওয়ান পরিস্থিতিতে তার সামর্থ্য সম্পর্কে আমি জানি। তবে এর আগে সে সফল হয়েছে কমই। তার গোলটি সত্যিই দুর্দান্ত। ভিনিসিউসকে কখনই এমন গোল করতে দেখিনি।’

জাতীয় দল সতীর্থ কাসেমিরো মুগ্ধ ভিনিসিউসের ম্যাচ জেতানো গোলে। তিনি বলেন, ‘ম্যাচে সেরা ছন্দে ছিলো না সে। কিন্তু সে নিজের সামর্থ্যে বিশ্বাস রেখে ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। জাত ফুটবলাররা সব সময় ব্যবধান গড়ে দেয়। যেমন সেভিয়ার বিপক্ষে পয়েন্ট এনে দিয়েছে ভিনিসিউস।’
১৪ ম্যাচে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রিয়াল মাদ্রিদ। ২৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। তাদের সমান পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রিয়াল সোসিয়েদাদ। ২৩ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার সাতে বার্সেলোনা।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর