× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার , ৯ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

মা ও মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে গাইবান্ধায় ৩ জিনের বাদশার যাবজ্জীবন

বাংলারজমিন

উত্তরাঞ্চল প্রতিনিধি
১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার

অলৌকিকভাবে মূল্যবান সম্পদ পাইয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে মা ও মেয়েকে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণের ঘটনা প্রমাণিত হওয়ায় ৩ প্রতারক জিনের বাদশাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।
গতকাল গাইবান্ধার নারী ও শিশু দমন ট্রাইব্যুনাল-২ আদালতের বিচারক মো. আব্দুর রহমান এই রায় প্রদান করেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো- এমদাদুল হক, বেলাল হোসেন ও খাজা মিয়া। মামলার বিবরণে বলা হয়, ২০১৮ সালের ১২ই মে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের দণ্ডপ্রাপ্ত জিনের বাদশা সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ি থেকে মা ও যুবতী মেয়েকে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে আসতে বলে। গভীর রাতে ফোন করে অলৌকিকভাবে মূল্যবান সম্পদ পাওয়ার লোভে মা ও মেয়ে ওই রাতেই গোবিন্দগঞ্জে চলে আসেন এবং জিনের বাদশা প্রতারক চক্রের ফাঁদে পা দেন। তাদের বাস গোবিন্দগঞ্জের চৌমাথায় থামলে এই প্রতারক চক্র মা ও মেয়েকে নির্জন স্থানে নিয়ে যায়। তারপর তাদের মুখ বেঁধে প্রথমে মেয়ে ও পরে মাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে তাদের ফেলে পালিয়ে যায় প্রতারকরা। পরে মা ও মেয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানায় এসে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।
দীর্ঘদিন সাক্ষ্য প্রমাণের পর গতকাল আদালত এই রায় দেন।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর