× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠিইতিহাস থেকে
ঢাকা, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, রবিবার , ৯ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিঃ

ময়মনসিংহে বিএনপিপন্থি ২ আইনজীবীকে জেলে পাঠানোর নির্দেশ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ থেকে
১ ডিসেম্বর ২০২১, বুধবার

গতকাল ময়মনসিংহ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. হেলাল উদ্দিন শুনানি শেষে এডভোকেট উছমান গণি মল্লিক (মাখন) ও এডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন ওরফে বিডি তোফাজ্জলকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। জেলা বারের সাবেক সভাপতি এডভোকেট নুরুল হকসহ বাকি ৯ আইনজীবীকে পুলিশ রিপোর্ট পর্যন্ত জামিন দিয়েছেন। মামলার তথ্যনুসারে, ময়মনসিংহে বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে মানহানিকর স্লোগান দেয়ায় গত ১৪ই সেপ্টেম্বর রাতে ১১ আইনজীবীর বিরুদ্ধে কোতোয়ালি মডেল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ ময়মনসিংহ জেলা শাখার সদস্য সচিব এডভোকেট মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম মুহাম্মদ আজাদ। পরে ১৯শে সেপ্টেম্বর বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি কে এম জাহিদ সারওয়ার কাজলের হাইকোর্ট বেঞ্চ থেকে আট সপ্তাহের আগাম জামিন নেন বিএনপিপন্থি ১১ আইনজীবী। এদিকে জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় হাইকোর্টের নির্দেশনা মতে গত ১৬ই নভেম্বর ছিল আত্মসমর্পণের পর জামিন শুনানির দিন। সেদিন জেলা ও দায়রা জজ আদালতে বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা আত্মসমর্পণের পর জামিন আবেদন করলে আদালতকে ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট জহুরুল হক খোকা নিজেদের মধ্যে মামলাটি নিষ্পত্তির জন্য বিএনপির ওই ১১ আইনজীবীর জামিন আরও বৃদ্ধির কথা বলেন। পরে ময়মনসিংহ জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. হেলাল উদ্দিন ৩০শে নভেম্বর পর্যন্ত জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি করেন। জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির এমন সুপারিশে তখন আওয়ামীপন্থি আইনজীবীদের মধ্যে প্রচুর কানাঘুষা চলছিল।
এমন ঘটনার পরই জেলা আইনজীবী সমিতির বেশ কয়েকজন আইনজীবী প্রধানমন্ত্রী বরাবর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট জহিরুল হক খোকার বিরুদ্ধে নালিশি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ ব্যাপারে মামলার বাদী এডভোকেট মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম মুহাম্মদ আজাদ ময়মনসিংহ লাইভকে বলেন, বিএনপিপন্থি ২ আইনজীবীকে জেলে পাঠানোর পাঠানোর আদেশ দিয়ে বাকি আইনজীবীদের জামিন বৃদ্ধি করেছেন। মামলায় যুক্তি তর্ক ও শুনানিতে বাদী পক্ষে আদালতে শুনানিতে অংশ নেন পাবলিক প্রসিকিউটর কবীর উদ্দিন ভূঁইয়া ও বিবাদী পক্ষে ছিলেন এডভোকেট আব্দুল গফুর।
অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর